বুধবার,২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং


নতুন আঙ্গিকে হংকংয়ের ছাত্র আন্দোলন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৬.১১.২০১৪

jakia..hongkong_42656এক মাসেরও বেশি সময় গণতন্ত্রের দাবিতে বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়ার পর বিক্ষুদ্ধ ছাত্ররা এখন আন্দোলনের পরিসর বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ছাত্ররা মনে করছেন স্থানীয় সরকারের ক্ষমতা সীমিত থাকায় তাঁদের লক্ষ্য হওয়া উচিত বেজিংয়ের কমিউনিস্ট পার্টির সরকার৷ বৃহস্পতিবার এনিয়ে তাঁদের ভবিষ্য কর্মপন্থা ঘোষণা করা হবে। এদিকে চলতি সপ্তাহের শেষে, বেজিংয়ে এশিয়া-প্যাসিফিক ইকোনমিক কোঅপারেশনের (অ্যাপেক) বৈঠক থাকায় ওই সময় এই আন্দোলনকে আমলে নিতে চাইছে না চীন। হংকং ফেডারেশন অফ স্টুডেন্টস (এইচকেএফএস) নামে ছাত্র সংগঠনের নেতা অ্যালেক্স চাও হংকং সরকারের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন, ‘সব সিদ্ধান্ত চীনের পার্লামেন্ট ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেসে অনুমোদন করিয়ে আনতে হবে৷ তাই আমরা মনে করি বেজিংয়ে গিয়ে শীর্ষনেতাদের সঙ্গে সরাসরি কথা বললে সমাধান মিলতে পারে।’ টানা কয়েক দিন ধরে বিক্ষোভকারীরা শহরের তিনটি মূল অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক কেন্দ্র অবরোধ করায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে৷এক লাখেরও বেশি মানুষ এই আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন। এদের অনেকেই ওই তিনটি জায়গায় বেশ কিছু দিন রাতভোর অবস্থানও করেন৷ গত মঙ্গলবার হংকংয়ের মুখ্য প্রশাসক লিউং চুন-ইং অভিযোগ করে বলেন, ‘দীর্ঘ আন্দোলনের জন্য হংকং এবং সাংঘাই শেয়ারবাজারের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনে দেরি হচ্ছে৷’ ১৯৯৭ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে হস্তান্তরের পর চীন ‘এক দেশ, দুই ব্যবস্থা’র মাধ্যমে হংকং শাসন করে এসেছে৷ কিন্তু এক সাম্প্রতিক বিজ্ঞপ্তিতে বেজিং যখন জানায় যে ২০১৭ সালের মুখ্য প্রশাসক নির্বাচনের প্রার্থী নির্বাচনে তাদের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে তখন বিক্ষোভে ফুঁসে ওঠে হংকং৷ আন্দোলনের পুরোভাগে থাকে ছাত্রসমাজ৷ সম্প্রতি হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের এক জনমত সমীক্ষায় জানা যায়, এইচকেএফএস এখন হংকংয়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় রাজনৈতিক সংগঠন


এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি