সোমবার,১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং


বই সম্পাদনায় অবহেলা, দেখা দিচ্ছে তথ্য বিভ্রাট


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১২.০২.২০১৮

 

ডেস্ক রিপোর্ট:
বাংলাদেশের প্রকাশনা শিল্পের অগ্রগতি হলেও পিছিয়ে আছে সম্পাদনার বিষয়টি। শুধুমাত্র বই মেলাকেই কেন্দ্র করে প্রতি বছর গড়ে সাড়ে তিন হাজার বই প্রকাশিত হয়। এই সংখ্যা প্রতিবছর ক্রমান্বয়ে বেড়ে চললে বই প্রকাশনার ক্ষেত্রে যথাযথ মান অনুসরন করছে এমন প্রতিষ্ঠানের সংস্থার সংখ্যা খুবই কম। অধিকাংশ প্রকাশনা সংস্থা সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশ করছে বই। ফলে থেকে যাচ্ছে তথ্য বিভ্রাটের পাশাপাশি থেকে যাচ্ছে বিভিন্ন অসঙ্গতি।

পেশাদার সম্পাদনা পরিষদ না থাকার পেছনে আর্থিক সক্ষমতার অভাবকেই তুলে ধরছেন প্রকাশকরা।

তবে লেখকরা জানান, বই সম্পাদনার বিষয়ে উদ্যোগী ভূমিকা নিতে হবে প্রকাশকদেরই।

অবসর প্রকাশনীর প্রকাশক আলমগির রহমান বলেন, সম্পাদক সহজলভ্য তা নয় আবার বানান সমন্বয়কারী তারাও সহজলভ্য নয়। যার ফলে একটা সংকট থেকেই যাচ্ছে।

লেখকরা বলেন, দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে আসা প্রকাশনা সংস্থাগুলোতে এখনও সম্পাদনা পর্ষদ না থাকাটা অনাকাঙ্খিত। এ ব্যাপারে প্রকাশকদের নিতে হবে দ্বায়িত্বশীল ভূমিকা।

লেখক অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, মানটা যেমন একটা গল্প ঠিকমত হলো কিনা, একটা উপন্যাস ঠিক মত হলো কিনা এগুলো দেখার দায়িত্ব সম্পাদনা পরিষদের। আমি মনে করি প্রত্যেকটি প্রকাশনার উচিত সম্পাদনা পরিষদ করার।

দেশে এখন চারশোর বেশি প্রকাশনা সংস্থা রয়েছে। প্রকাশনা শিল্প সৃজন ও ব্যবসায় দুই অর্থেই হয়ে উঠুক শিল্প, এমন প্রত্যাশা সকলের।

পূর্বাশানিউজ/১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮/মাহি



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি