শনিবার,১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং


দৃশ্যমান হচ্ছে দেশের প্রথম মেট্রোরেল


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০১.১২.২০১৮

ডেস্ক রিপোর্টঃ  দিন দিন দৃশ্যমান হচ্ছে দেশের প্রথম মেট্রোরেল। ২২ হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্পের প্রথম অংশ দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত কাজের শেষ হবে আগামী বছর ডিসেম্বরের মধ্যে। বলা হচ্ছে, ২০২০ সালের মধ্যে শেষ হবে পুরো কাজ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দীর্ঘ মেয়াদী এ প্রকল্প সময়মত শেষ না হলে মানুষের দূর্ভোগ আরো বাড়বে। এছাড়া একাধিক মেট্রোরেল ও সুষ্ঠু গণপরিবহন ব্যবস্থা ছাড়া নির্বিঘœ চলাচল সম্ভব নয় বলে মনে করেন তারা।

এম আরটি ৬ নামে নির্মাণাধীন এটিই দেশের প্রথম মেট্রোরেল প্রকল্প। উত্তরা দিয়াবাড়ি থেকে মিরপুর, বিজয় স্মরণী,ফার্মগেট,শাহাবাগ হয়ে মতিঝিল পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার প্রকল্পের এ কাজকে ভাগ করা হয়েছে দুই পর্বে। এখন চলছে, দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার এ অংশের নির্মাণ কাজ। ২০১৬ জুনের শুরু হওয়া এই কর্মযজ্ঞের প্রায় শেষ হয়েছে এ পর্যন্ত। সড়কের মাঝ বরাবর দৃশ্যমান ১৩০ টি পিলার বা পিয়ার। বাকী আছে আরো ৩১৮ টি। পুরোপুরি শেষ হয়েছে ভূগর্ভের ২৩২৭ টি পাইলের কাজ।

মিরপুর ১০, ১১ কিংবা শেওড়াপাড়া থেকে দিয়াবাড়ির অংশ বেশ ভিন্ন। কংক্রিটের খুঁটির উপর বসানো ৭০০ মিটারের মত স্পেন অনেকটা স্পষ্ট কেমন হতে যাচ্ছে মেট্রোরেলের অবয়ব, যার উপর দুই লেনে চলবে ট্রেন, কেমন হবে তার কোচের আকৃতি তা এখন চূড়ান্ত।

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম .এ. এন ছিদ্দিক বলেন, মাটির নিচে যে কাজগুলো আছে এই কাজগুলোতে সময় বেশি ব্যয় হয়। যখন আমাদের কাজগুলো উপরে চলে আসে, তখন কাজগুলো একটু দ্রুততার সাথে করা যায়। আমরা আশা করছি, আমাদের কাজের পরিবেশটা যদি আমরা বজায় রাখতে পারি, তাহলে ডিসেম্বর মাসের মধ্যে ২০১৯ সালে আমরা এই কাজটি শেষ করতে পারব।

তিনি আরো বলেন, টেকনিক্যাল বিষয় যেগুলো আছে সেইগুলোর বৃহৎ যে কাজগুলো ছিল এ কাজগুলো আমরা শেষ করেছি। এখন, জাপানে এ ট্রেনটি তৈরি হচ্ছে। ভায়াডাগ নির্মাণ শেষ হলে তার উপর রেলওয়ে ট্রেক বসবে, তার উপর ট্রেন বসবে, বৈদ্যুতিক লাইন বসবে। তারপর ট্রেন চলাচল শুরু করতে পারবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি