সোমবার,১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং


যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০২.১২.২০১৮

ডেস্ক রিপোর্টঃ  একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারাদেশের রিটার্নিং অফিসাররা মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করেছেন। অনেকের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে তারা হলেন-

সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় বিএনপি চেয়ারপরসন বেগম খালেদা জিয়ার ফেনী-১ আসন, ঋণ খেলাপির অভিযোগে হবিগঞ্জ-১ আসনে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়া ও সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, ঋণ খেলাপীর দায়ে টাঙ্গাইল ৪ ও টাঙ্গাইল ৮ আসনে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী।

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যান যশোর-২ আসনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী সাবিরা সুলতানার সাজা ও দন্ড স্থগিত করে দেওয়া হাইকোর্টের আদেশের ওপর চেম্বার আদালতের স্থগিতাদেশ চলমান রেখেছেন আপিল বিভাগ। কুড়িগ্রাম-৪ আসন (রাজিবপুর,রৌমারী ও চিলমারী উপজেলা) থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার, নির্বাচনে প্রার্থী হলে সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী আসনের মোট ভোটারের ন্যূনতম ১ শতাংশ ভোটারের সমর্থন থাকতে হয়। মনোনয়নপ্রত্যাশী ইমরান এইচ সরকারের এ সম্পর্কিত তথ্যে ঘাটতি রয়েছে।

ঋণ খেলাপির অভিযোগে ঢাকা-৬ আসনে বিএনপির প্রার্থী সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন, বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলম। ১% ভোটারের স্বাক্ষর নেই । ঋণ খেলাপির অভিযোগে টাঙ্গাইল-১ আসনে ফকির মাহবুব আলম। কুড়িগ্রাম-৪ মো. জাকির হোসেন, মনোনয়ন ফরম অসম্পূর্ণ ও তথ্যের ঘাটতি। যশোর-৩ আসনে জেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি শাহীন চাকলাদার, ১ শতাংশ ভোটারের সমর্থন নেই। পটুয়াখালী-৩ আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী গোলাম মাওলা রনি, হলফ নামায় স্বাক্ষর নেই । রাজশাহী-১ ব্যারিষ্টার আমিনুল ইসলাম, তথ্য গোপনের অভিযোগ। ঋণ খেলাপির অভিযোগে লক্ষীপুর-১ এম এ আওয়াল, (বর্তমান এমপি), লক্ষীপুর-২ শাহ আহম্মদ বাদল, ১৯ হাজার টাকা বিদ্যুৎ বিল বাকী। রংপুর-১ আসাদুজ্জামান বাবলু, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান থেকে পদত্যাগ করলেও গেজেট না হওয়ায়। ঢাকা-৯ আসনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের মনোনয়ন স্থগিত করা হয়েছে। গোপালগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী এস এম জিলানী ও জাতীয় পার্টির এ জেড এম অপু শেখের, যথাযথ কাগজপত্র ও স্বাক্ষর না থাকায় তাদের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়।

চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) বিএনপির সাবেক সংসদ গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর জ্যেষ্ঠ পুত্র সামির কাদের চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী) বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মোরশেদ খান, বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। রাজশাহী ৩ আসনে ৫ জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। এরা হলেন, জাতীয় পার্টির শাহবুদ্দিন বাচ্চু, বিএনপির মতিউর রহমান মন্টু, স্বতন্ত্র (জামায়াত) মাজিদুর রহমান, আতিকুর রহমান এবং আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা। শাহবুদ্দিন বাচ্চু, বিএনপির মতিউর রহমান মন্টু ঋণখোপির অভিযোগে এবং ৩ জনের তথ্যে গড়মিল থাকায় মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

মাদারীপুর-২ (সদরের একাংশ ও রাজৈর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আল আমিন মোল্লা ও কাদের মোল্লা, সিলেট-৫-৬ আসনে বিরোধী দলীয় হুইপ সেলিম উদ্দিন, ঢাকা-১ আসনে ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু আশফাক ও নবাবগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান ফাহিমা হোসাইন জুবলি। চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকুণ্ড) আসনে আওয়ামী লীগের দিদারুল আলম ও বিএনপির প্রার্থী আসলাম চৌধুরী।

এ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ৩০৫৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। অনলাইনে জমা দিয়েছেন ৩৯ জন। তবে অনলাইনে মাত্র ২৩টি সঠিকভাবে জমা পড়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি