[bangla_day],[english_date]


ভাইরাল জ্বরে অ্যান্টিবায়োটিকের ভূমিকা রয়েছে কি?


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
14.12.2018


ডেক্স রিপোর্টঃ ভাইরাস দিয়ে আক্রান্ত হয়ে জ্বর হলে আমরা একে ভাইরাল ফিবার বা ভাইরাল জ্বর বলি। জ্বর হলে অনেকেই শিশুকে অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ানো শুরু করেন। তবে ভাইরাস জ্বরে কি অ্যান্টিবায়োটিকের কোনো ভূমিকা রয়েছে?

এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানে ৩২৮৩তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. মশিউর রহমান। বর্তমানে তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালের নবজাতক ও শিশু বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : ভাইরাসজনিত জ্বরে অ্যান্টিবায়োটিকের কোনো ভূমিকা রয়েছে কি? শিশুর সর্দিজ্বর হলে কী করতে হবে?

উত্তর : কোনো ভূমিকা নেই। আমি পরামর্শ দেব মা-বাবাকে, তারা যেন একটু ঠান্ডা থাকেন। আসলে জ্বর হলো একটি লক্ষণ। এ থেকে বোঝা যায় যে তার শরীরে একটি জীবাণু ঢুকেছে। আর শতকরা ৯০ ভাগ জীবাণু হলো ভাইরাস। ভাইরাসে কোনো অ্যান্টিবায়োটিক লাগে না। অ্যান্টিবায়োটিক লাগবে যদি সে আরো কিছুদিন জ্বরে ভুগতে থাকে, শ্বাসকষ্ট শুরু হয়ে যায়। তখন একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক হয়তো তাকে অ্যান্টিবায়োটিক দিতে পারে। তবে প্রথম তিন-চার দিন এই অ্যান্টিবায়োটিকের কোনো প্রয়োজন নেই। শুধু জ্বরের ব্যবস্থা নেবে প্যারাসিটামল খাইয়ে। একটি নির্দিষ্ট ডোজে যদি খাওয়ায়, ছয় ঘণ্টা পর পর, তাহলে জ্বরটা কম থাকবে। নাকের যতœ নেবে। আর একটু তরল খাবার বেশি করে দেবে। যদি দেখা যায় শ্বাসকষ্ট হচ্ছে, তখন তাদের অ্যান্টিবায়োটিকের প্রয়োজন হতে পারে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি