[bangla_day],[english_date]


আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের নির্বাচন শনিবার


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
23.12.2018


ডেক্স রিপোর্টঃ যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশি আমেরিকান সাংবাদিকদের সংগঠন আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের (এবিপিসি) নির্বাচন আগামী শানিবার (২৯ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত হবে। স্থানীয় সময় গত শনিবার প্রেসক্লাবের সাধারণ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে।

চ্যানেল আইয়ের উত্তর আমেরিকা প্রতিনিধি মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ আহমেদকে কমিশনের প্রধান ও মিশুক সেলিম এবং নোঙর টিভির সিইও জাহেদ শরীফকে কমিশনের সদস্য করা হয়।

সাধারণ সভা শেষে নির্বাচন কমিশন তার তফসিল ঘোষণা করেন। ২৬ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র জমা নেওয়ার শেষ সময়। পরদিন চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ এবং ২৯ ডিসেম্বর শনিবার নির্বাচন তারিখ নির্ধারণ করা হয়। তফসিল ঘোষণার পরই নির্বাচনে আগ্রহীরা মনোনয়নপত্র কিনতে শুরু করেছেন। এছাড়া সাধারণ সভায় দুই বছর মেয়াদের কার্যকরী কমিটির সংখ্যা ৯ থেকে বাড়িয়ে ১১ করা হয়।

এবিপিসির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা লাবলু আনসারের সভাপতিত্বে সম্প্রীতির আবহে নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে পালকি পার্টি সেন্টারের এ সভা সঞ্চালনা করেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম।

ক্লাবের আয়-ব্যয়ের হিসাব উপস্থাপন করেন কোষাধ্যক্ষ মো. আবুল কাশেম।

সভায় বিগত দুই বছরের যাবতীয় কর্মকাণ্ডের ফিরিস্তি উপস্থাপনকালে সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বলেন, আমাদের এ ক্লাবের প্রতিটি সদস্য সৎ, নিষ্ঠাবান ও পেশাদার সাংবাদিক। এটাই আমাদের অহংকারের মূল জায়গা। আর এ কারণে আমাদের প্রতিটি অনুষ্ঠানে বাংলাদেশি কমিউনিটিকে আমরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে পাশে পেয়েছি। সংকট ও নানান সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও আমরা ঐক্যবদ্ধ থেকেছি।

সভায় বক্তব্য দেন- ক্লাবের যুগ্ম-সম্পাদক রিজু মোহাম্মদ, সিনিয়র সদস্য মিজানুর রহমান, রাশেদ আহমদ, আকবর হায়দার কিরণ, জাহেদ শরীফ, শিব্বির আহমেদ, নিহার সিদ্দিকী, পপি চৌধুরী, ফারহানা চৌধুরী প্রমুখ।

সাধারণ সভায় ক্লাব সদস্যগণের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন- ক্লাবের কার্যকরী সদস্য কানু দত্ত, সদস্য জামান তপন, সাজ্জাদ হোসেন, আমজাদ হোসেন, মিসবাহ উদ্দিন, তপন চৌধুরী, শাহ ফারুকুর রহমান, শহীদুল্লাহ কায়সার, মোহাম্মদ মোস্তফা, সুজন আহমেদ, মোহাম্মদ হোসেন দিপু, আদিত্য শাহীন প্রমুখ।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি