[bangla_day],[english_date]


পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষাকে প্রত্যাখ্যান করছি


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
26.12.2018


ডেক্স রিপোর্টঃ শিক্ষাবিদ অধ্যাপক যতীন সরকার বলেছেন, পিইসি ও জেএসসির কথা শুনলেই আমার রাগ হয়। এটির ফলাফল নিয়ে এতো উল্লাসের কিছু নেই। দেশের সকল বিশিষ্ট শিক্ষাবিদরা বলছেন, পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষা বাতিল করার জন্য। সেটি বাতিল না করে রংঢং করা হচ্ছে।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপের সময় তিনি বলেন, কোন বোর্ডে কতো শতাংশ পাস করলো, কোনটি বেশি ভলো করলো আর কোনটি করলো না, সেটি নিয়ে টানাটানিকে আমি প্রত্যাক্ষান করি। পিইসি ও জেএসসি এ দুটি পরীক্ষাকেও প্রত্যাক্ষান করছি। আমরাও পড়াশোনা করেছি। ছোটবেলায় এতো পরীক্ষা না দিয়ে কী কোনো বিষয় কম শিখেছি? বরং আমাদের জীবনে পড়াশোনার পাশাপাশি যে আনন্দ ছিলো, সেটি এখনকার ছেলে-মেয়েদের মধ্যে নেই। বলতে কষ্ট হয় এখন বয়স পাঁচ বা ছয় হলেই পিঠের মধ্যে বই নিয়ে স্কুল-কোচিং-এ ছুটতে হয়। তাহলে তার খেলাধুলার সময় কোথায়? তার জীবনে আনন্দ কোথায়? পড়াশোনাই কী জীবনের সব কিছু? এতো চাপ কী এ কোমল শিশুরা নিতে পারছে? আমার মনে হয় পারছে না।

যার জন্য আমরা এখন মানসিক চাপ ও পড়াশোনার চাপের কারণে আত্মহত্যা ও অন্য দুর্ঘটনাগুলো দেখতে পাই। অভিভাবাক ও শিক্ষকরা মিলে শিশুদের রেসে নামিয়ে দেয়। কোচিং সেন্টারে পড়ো, প্রাইভেট টিউটরের কাছে পড়ো, স্কুলে গিয়ে পড়ো। এতো পড়া কেন? এতো চাপ কেন?

আমি ছোটবেলা গল্পের বই থেকে শুরু করে অনেক বই পড়েছি। এখনকার ছাত্র-ছাত্রীদের সেই সুযোগ নেই। পাঠ্য বইয়ের চাপই সামলাতে পারে না, অতিরিক্ত বই পড়বে কীভাবে? পড়াশোনায় এখন আর কোনো আনন্দ নেই আর আনন্দ নেই বলেই ছেলে-মেয়েরা একটু বড় হলেই বিভিন্ন অপরাধজনিত কাজে জড়িয়ে পড়ে। টিনএইজরা বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ে পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষাটি একমাত্র কারণ আমি বলছি না, তবে পরীক্ষাটি এ অপরাধের প্রধান কারণ। এসব পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে বেশি মাতামাতি না করে, এটি কীভাবে বর্জন করা যায় সে ব্যবস্থা করতে হবে। এ দুটি পরীক্ষা বাতিল হলে, পড়াশোনার খরচ অনেক কমে যাবে। কোচিং বাণিজ্য কমে যাবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি