শুক্রবার,১৮ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং
  • প্রচ্ছদ »জাতীয় » আওয়ামী লীগ অফিসের টিভি চুরির অপবাদে যুবককে অমানবিক নির্যাতন


আওয়ামী লীগ অফিসের টিভি চুরির অপবাদে যুবককে অমানবিক নির্যাতন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৫.০১.২০১৯

ডেক্স রিপোর্টঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দু’দিন আগে ২৮ ডিসেম্বর ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডুতে টিভি চুরির অপবাদে গাছে বেঁধে উল্টো করে পেটানো হয় রানাকে। তাহেরহুদা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রহমান তুহিনের নেতৃত্বেই চলে এ নির্যাতন।

টিভি চুরির অপবাদে গাছের সাথে বেঁধে উল্টো করে এক যুবককে অমানবিকভাবে নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল হওয়ার পর অভিযুক্তদের বিচারের দাবিতে উত্তাল ঝিনাইদহের হরিনাকুণ্ডু। ঘটনার মূল হোতা স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা তুহিনকে গ্রেপ্তার করা হলেও বিচার নিয়ে সংশয়ে স্থানীয়রা। উপজেলার তাহেরহুদা ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিস থেকে টিভি চুরির অপবাদে অমানবিক নির্যাতন চালানো হয় যুবকটির ওপর।

ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় হয়। ঘটনার পর থানায় যেতেই সাহস পায়নি ভুক্তভোগী পরিবারটি। চুরির অপরাধে রানাকে হালকা মার দেয়া হয়েছে বলে গ্রেপ্তারের আগে জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগ নেতা তুহিন। ঘটনার পাঁচদিন পর রানার বাবা ওমর আলী মামলা করেন হরিনাকু-ু থানায়। তুহিনকে প্রধান আসামি করে চারজনের নাম উল্লেখ করা হয় মামলায়। রাতেই পুলিশ গ্রেপ্তার করে প্রধান আসামি তুহিনকে। ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ।

ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চান নির্যাতিত রানার স্বজন ও এলাকাবাসী।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি