[bangla_day],[english_date]
  • প্রচ্ছদ »জাতীয় » রূপগঞ্জের জামদানির হাটে ৪৫ মিনিটে ২০ লাখ টাকার বিকিকিনি


রূপগঞ্জের জামদানির হাটে ৪৫ মিনিটে ২০ লাখ টাকার বিকিকিনি


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
22.05.2019

ডেস্ক রিপোর্ট :

পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরকে সামরে রেখে কেনাকাটায় অনেক নারীর পছন্দের তালিকায় রয়েছে জামদানি শাড়ি। তাই ঈদের আগে ক্রেতার ব্যাপক চাহিদার কথা ভেবে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন নারায়নগঞ্জ রূপগঞ্জের জামদানি কারিগররা। আড়তদারদের হাত হয়ে এখানকার জামদানী চলে যায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। এছাড়াও রপ্তানি হয় পৃথিবীর নানা দেশে।

ঈদকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে শীতলক্ষ্যা পাড়ের প্রাচীন জামদানির হাট। রূপগঞ্জের বিসিক জামদানী শিল্প নগরীতে প্রতিদিন এই হাট বসে। তবে শুক্রবারের হাটে ক্রয়-বিক্রয় তুলনামূলক অন্য দিনের চেয়ে বেশি হয়ে থাকে।

ফজর নামাজের পর বসা এই হাট চলে মাত্র ৪৫ মিনিট। এটুকু সময়ের মধ্যেই বিকিকিনি হয়ে যায় প্রায় ২০ লাখ টাকার শাড়ি।

জামদাদির মূল আকর্ষণ হলো এর নকশা। ক্রেতার রুচি আর চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে বর্তমানে ফল তেরছি, ছিটার তেরছি, ছিটার জাল, সুই জাল, হাঁটু ভাঙা এবং পাটির জাল’সহ নানান রকম ফুলের ভাজে ভাজে দেখা যায়। এসব শাড়ির দাম পড়ে ৫ হাজার থেকে ২ লাখ টাকা পর্যন্ত।

শত বছর আগ থেকে রুপগঞ্জ, সোনারগাঁ ও সিদ্বিরগঞ্জে জামদানির শাড়ি তৈরি হয়ে আসছে। তবে শঙ্কার কথা হলো জামদানি শিল্পীর সংখ্যা দিন দিন কমে আসছে। আড়াই দশক আগেও এর সংখ্যা ছিলো দেড় লাখ। বর্তমানে মাত্র ৪ হাজার পরিবার এই শিল্পের সাথে জড়িত।

মনকারা ভারি নকশার এসব শাড়ি দেশ ছাড়াও ভারত, নেপাল, ইউরোপ ও আমেরিকায় বিপুল চাহিদা রয়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি