সোমবার,২৬শে আগস্ট, ২০১৯ ইং


ডেঙ্গুজ্বরের প্রকোপ ঢাকায় কমছে, বাড়ছে বাইরে


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১০.০৮.২০১৯

ডেস্ক রিপোর্টঃ

প্রতিদিন ডেঙ্গুজ্বরে রাজধানীসহ সারা দেশে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। গত ২৪ ঘণ্টায় কমেছে রোগী ভর্তির হার। তবে ঢাকায় রোগী ভর্তি কমলেও বেড়েছে ঢাকার বাইরে। এ ছাড়া ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় ৩ জন, ফরিদপুরে ১ জন ও বরিশালে ১ জনসহ মোট ৫ জন মারা গেছেন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, আগস্ট মাসের নয় দিনে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ২০৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত ১০টি হাসপাতাল এবং বেসরকারি ৩০টি হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২ হাজার দুজন। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২ হাজার ৩২৬ জন। দুই দিনই ৪০টি হাসপাতালে রোগী ভর্তির হিসাব গণনা করা হয়েছে। গতকাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৮০ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০৩ জন, মিটফোর্ড হাসপাতালে ৬৩ জন, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৮৬ জন ভর্তি হয়েছেন। এ ছাড়া বেসরকারি হাসপাতালেও প্রতিদিন বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। বেসরকারি হাসপাতালের মধ্যে গতকাল সবচেয়ে বেশি রোগী ভর্তি হয়েছেন হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ৪০ জন। ঢাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪৭ জন। ঢাকা বিভাগ এবং অন্য বিভাগে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৫৫ জন। ডেঙ্গুজ্বরে গতকাল রাজধানীতে চারজন মারা গেছেন। এর মধ্যে বেসরকারি হাসপাতাল শমরিতায় সুকান্ত রোজারিও (১৯) নামে এক শিক্ষার্থী মারা গেছেন। বাড়ি নাটোরের বনপাড়ায়। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কোচিং করতে ঢাকায় অবস্থান করছিলেন। ইউনাইটেড হাসপাতালে মাহবুব নামে (৮) এক শিশু মারা গেছে। ঢাকা মেডিকেলে শামীম (২৫) ও রিফাত (১০) মারা গেছে।

শামীম মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার কুদ্দুস মিয়ার ছেলে। রাজধানীর মুগদা থেকে গত বৃহস্পতিবার ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি হয়েছিল শিশুটি। এ ছাড়া ফরিদপুর মেডিকেলে লিপি আক্তার নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলায়। বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেলে মজিবর রহমান (৫৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি বরগুনা সদরের বাসিন্দা এবং বরগুনা রাইফেলস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

এছাড়া ঠাকুরগাঁও থেকে দিনাজপুর হাসপাতালে যাওয়ার পথে মারা গেছেন অপি রানী রায় নামে এক কলেজছাত্রী। তিনি ঠাকুরগাঁও জেলার নারী শঙ্কেল উপজেলার লেহেম্বা গ্রামের অনুকুল চন্দ্র রায়ের একমাত্র মেয়ে। তিনি এবার রংপুর ক্যান্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে গোল্ডেন এ প্লাস নিয়ে পাস করেন।

সম্পাদনা: তানজিনা রুমকী



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি