সোমবার,১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং
  • প্রচ্ছদ » কুমিল্লা নিউজ » কুমিল্লার সেই এএসআই আক্তার ক্যান্সারকে জয় করলেন,কিন্তু সড়ক দুঘর্টনার কাছে হেরে গেলেন


কুমিল্লার সেই এএসআই আক্তার ক্যান্সারকে জয় করলেন,কিন্তু সড়ক দুঘর্টনার কাছে হেরে গেলেন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৩.০৯.২০১৯

ইমতিয়াজ আহমেদ জিতুঃ

প্রায় এক বছর আগে মরণ ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্স হয়েছিলেন মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশের সহকারি উপ-পরিদর্শক আক্তার হোসেন। কিন্তু বেশ কয়েক মাস আগে তিনি ক্যান্সারের সাথে লড়াই করে সুস্থ হয়ে আবার কর্মস্থলে ফিরে ছিলেন। কিন্তু মৃত্যু পিছু ছাড়েনি এএসআই আক্তারের। ক্যান্সারকে হার মানাতে পারলেও সড়ক দুঘর্টনার কাছে নিজের জীবন সপে দিলেন এই পুলিশের কর্মকর্তা। কর্মস্থলে নিজের দায়িত্ব পালনকালে ঘাতক কাভার্ডভ্যান এই পুলিশ কর্মকর্তার জীবন কেড়ে নিলো।

নিহত মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশের সহকারি উপ-পরিদর্শক আক্তার হোসেন(৪২)কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার উত্তর শিলমুড়ি ইউনিয়নের ছোটবাটুয়া গ্রামের দুলা মিয়ার ছেলে । তার ২ শিশু সন্তান রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, সোমবার (২ সেপ্টেম্বর) ভোরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামের বাবুর্চি বাজার এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় হাইওয়ে পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আক্তার হোসেনসহ তিনজন নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৪ জন। স্থানীয় সূত্র জানায়, ভোর সোয়া ৫ টায় সৈয়দপুর এলাকায় চট্টগ্রামমুখী কাভার্ডভ্যান (ঢাকা মেট্রো-ট-১৮-৮৩৮৬) বিকল হয়ে সড়কের পাশে পড়ে ছিল। খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশের এএসআই আকতার হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম পুলিশ পিকআপ ও রেকারসহ ঘটনাস্থলে দুর্ঘটনা কবলিত কাভার্ডভ্যানটি সরাতে রেকারের মাধ্যমে কাজ শুরু করে। এ সময় পেছন থেকে দ্রুতগামী একটি কাভার্ডভ্যান সড়কের পাশে পড়ে থাকা ওই কাভার্ডভ্যানকে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। এতে দাঁড়িয়ে থাকা কাভার্ডভ্যান এর সাথে রেকারে, আর রেকারের সামনে থাকা পুলিশ পিকআপ ভ্যানে ধাক্কা লাগে । এ সময় রেকারের সামনে দাঁড়ানো এএসআই আকতার হোসেনসহ আরো ৭ জন চাপা পড়ে । এতে ঘটনাস্থলে এএসআই আক্তার হোসেন ও প্রথম কাভার্ডভ্যানের হেলপার সুমন নিহত হন। অন্য গাড়ির হেলপার ফাহাদ, রেকার চালক স্বপন ও তার ভাই হেলপার মামুনসহ ৫ জন আহত হন। কুমেক হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত ফাহাদকে মৃত ঘোষণা করেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি