রবিবার,৮ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং


এমপিও ভুক্ত হলো কুমিল্লার বরুড়ায় স্কুল শিক্ষকের স্বপ্নের গড়া উচ্চ বিদ্যালয়টি


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২৫.১১.২০১৯

সাকিব আল হেলাল।।

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার দক্ষিন খোশবাস ইউনিয়নের প্রত্যান্ত গ্রাম অঞ্চলে অবস্থিত মুগুজী আব্দুস ছোবহান উচ্চ বিদ্যালয়।লাকসাম তোরাব আলী উচ্চ বিদ্যালযের প্রধান শিক্ষক ও মুগুজী গ্রামের আব্দুস ছোবহান ২০০১ সালে ৫ জন শিক্ষক ও ৭০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে ছোট একটি ঘরে বিদ্যালয়টি স্থাপন করেন। শিক্ষক ছোবহান এই এলাকাটিতে শিক্ষার আলো ছড়াতে নিজের কেনা ও পৈত্রিক সম্পতিসহ ৭৫ শতক জমি বিদ্যালয়ের নামে দান করেন।বর্তমানে স্থায়ী ৯ জন ও খন্ডকালিন ৩ জনসহ মোট ১২জন শিক্ষক দিয়ে ৬ষ্ঠ থেকে দশম শ্রেনী পর্যন্ত ৩৯৫জন শিক্ষার্থীদের পাঠদান দেওয়া হয়।প্রতিষ্ঠাতা ও শিক্ষক ছোবহান সারাজীবন তার শিক্ষকতার আয়ের সম্পূর্ন অর্থ ব্যায় করেছেন মুগুজী আব্দুস ছোবহান উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনে।তার একটাই স্বপ্ন ছিল এলাকাটির মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়া।সে অনুযায়ী মানসম্মত পাঠদান দিচ্ছেন শিক্ষকরা।

সবসময় ভালো ফলাফল করে এ বিদ্যালয় থেকে অংশ নেওয়া এসএসসি পরিক্ষার্থী শিক্ষার্থীরা।২০১৯ সালের এসএসসিতে করেছে শতভাগ পাশ। এ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রত্যাশা ভালো সুযোগ সুবিদা পেলে আমাদের শিক্ষার্থীরা বোর্ড সেরা ফলাফল করবে।

গত কিছুদিন পূর্বে বরুড়া উপজেলার দুটি উচ্চ বিদ্যালয়কে এমপিও ভুক্ত করা হলে এর মাঝে মুগুজী আব্দুস ছোবহান উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম আসে।এই বিদ্যালয়টির এমপিও ভুক্তির ঘোষনা শুনে আনন্দের বন্যা বয়ে যায় শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়দের মাঝে।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানান,আমাদের বিদ্যালয়টি এমপিও ভুক্ত করায় আমরা আনেক খুশি।আমরা অনেক সুবিদা থেকে বঞ্চিত।আমাদের ডিজিটাল ল্যাব নেই।আমাদের ভালো ভবন নেই জরাজীর্ন টিনের ঘরে ক্লাশ করতে হয়।সামান্য বৃষ্টি হলে পানি পড়ে ক্লাস করতে সমস্যা হয়।আমাদের ভালো একটি ভবন হলে আমরা ভালোভাবে পড়াশোনা করতে পারতাম”।

প্রধান শিক্ষক আলী হোসেন বলেন,আমরা অনেক খুশি।আমাদের বিদ্যালয়ে কিছু সমস্যা আছে এগুলো সমাধান করে দিলে শিক্ষার্থীদের পড়াতে অনেক সুবিদা হতো”।

প্রতিষ্ঠাতা শিক্ষক আব্দুস ছোবহান বলেন,অনেকদিন পর আমার স্বপ্ন পূরন হইছে।আমার সারাজীবনের পরিশ্রম সফল।আমার সারা জীবনের আয়ের সম্পূর্ন অর্থ খরচ করেছি এই বিদ্যালয়টির পিছনে।এখন আমি মরে গেলেও আমি শান্তি পাবো।কারন আমার অবর্তমানেও বিদ্যালয়টি বন্ধ হবে না।আমি চাই এলাকাটি শিক্ষার জ্ঞানে আলোকিত হউক”।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি