রবিবার,৮ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং


কুমিল্লার বুড়িচংয়ে শিক্ষিকা স্কুলে অনুপস্থিত ১০ মাস, বেতন নিচ্ছেন নিয়মিত


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২৮.১১.২০১৯

স্টাফ রিপোর্টারঃ

বিদ্যালয়ে ক্লাস না নিয়ে শুধু  বেতন-ভাতা তুলছেন এক সহকারী শিক্ষিকা,

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সদর ইউনিয়নের পূর্ব পূর্ণমতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মল্লিকা হাসান প্রীতি এ বিদ্যালয়ে যোগদান করে বিভিন্ন অজুহাতে প্রায় ১০ মাসের অধিক সময় ধরে অনুপস্থিত। এতে করে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাঠদানসহ বিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কাজে ব্যঘাত ঘটছে বলে প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা কমিটির অভিযোগ রয়েছে।

এ বিদ্যালয়টি ১৯৮৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ২০১৩ সাল জাতীয় করণ করা হয়। বর্তমানে এ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সংখ্যা ২০৫ জন এবং শিক্ষক সংখ্যা ৫ জন। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক হিসেবে রয়েছেন ফেরদৌসী আক্তার আপেল। বিগত এক বছর থেকে বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মল্লিকা হাসান প্রীতির যোগদানের শুরু থেকেই বিভিন্ন সময়ে কারণে অকারণে অনুপস্থিতি নিয়ে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের মাঝে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়।

শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের অভিযোগ, শিক্ষক সংকটের কারণে সঠিকভাবে এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি পাঠদান দীর্ঘ দিন থেকে ব্যাহত হচ্ছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফেরদৌসী আক্তার আপেল জানান, এ বছরের ১৭ জানুয়ারী সহকারি শিক্ষক হিসেবে মল্লিকা হাসান প্রীতি চাকুরীতে যোগাদান করেন। যোগদানের পর কয়েকদিন ক্লাস করার পর থেকেই তিনি ওই মাসের ৫ তারিখে সিএল ছুটি নেন। এরপর নাম মাত্র কয়েকদিন ক্লাস করে আবারো ২দিনের ছুটি নেন। গত ১১ ফেব্রুয়ারী-২০১৯ থেকে ১৬ এপ্রিল ১৯ইং পর্যন্ত ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বি-পাড়া ডায়গনস্টিক সেন্টার নামের একটি প্রাইভেট ক্লিনিক থেকে মেডিকেল সার্টিফিকেট নিয়ে পুনরায় ছুটি কাটান। ১৭ এপ্রিল হাজিরা দিয়ে আবারো তিনি ছুটি নেন এবং গত আগষ্ট মাসের ২৬ তারিখ থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত অনুপস্থিত রয়েছেন। এতে করে বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে এবং শিক্ষার্থীদের সামনে বার্ষিক পরীক্ষা থাকায় পাঠদানে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি