সোমবার,১৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
  • প্রচ্ছদ » জাতীয় » করোনাভাইরাসের টিকা তৈরি করতে কমপক্ষে আরও ১৮ মাস সময় লাগবে


করোনাভাইরাসের টিকা তৈরি করতে কমপক্ষে আরও ১৮ মাস সময় লাগবে


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৩.০২.২০২০


ডেস্ক রিপোর্টঃ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, কোথা থেকে নতুন করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছে, তা এখনো শনাক্ত করতে পারেননি বিজ্ঞানীরা। এই ভাইরাস থেকে হওয়া কোভিড-১৯ রোগ প্রতিরোধের টিকা তৈরি করতে কমপক্ষে ১৮ মাস সময় লাগবে। এরই মধ্যে ভাইরাস বিষয়ে জাতিসংঘের সংকটকালীন ব্যবস্থাপনা দলকে সক্রিয় করা হয়েছে। গতকাল বুধবার ডব্লিউএইচওর ওয়েবসাইটে এসব কথা বলা হয়েছে।

গত ডিসেম্বরে চীনে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। তবে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি। এই ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ইতিমধ্যে ৫৯ জনের মুখের লালা ও রক্তের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

আর গতকাল চীনফেরত আরও একজন শিক্ষার্থীকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁকে আলাদা (আইসোলেশন) ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। এর আগে চীনফেরত আরও দুই শিক্ষার্থীকে রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছিল। তাঁদের কারও শরীরে এই ভাইরাস শনাক্ত হয়নি।

অন্যদিকে সিঙ্গাপুরে আক্রান্ত দুজন বাংলাদেশির এখনো চিকিৎসা চলছে। গতকাল সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. মোস্তাফিজুর রহমান প্রথম আলোকে জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত গুরুতর অসুস্থ বাংলাদেশির শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। সিঙ্গাপুরের ন্যাশনাল সেন্টার ফর ইনফেকশাস ডিজিজ বা এনসিআইডির নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁর চিকিৎসা চলছে। আক্রান্ত অন্য বাংলাদেশিরও চিকিৎসা চলছে একই হাসপাতালে। এ ছাড়া আরও নয়জন বাংলাদেশিকে গত রোববার থেকে ‘কোয়ারেন্টাইন’ করে রেখেছে সিঙ্গাপুর কর্তৃপক্ষ।

এদিকে সীতাকুণ্ড থেকে ১৭ জন চীনা নাবিককে গতকাল উড়োজাহাজে করে চীনে ফেরত পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। গতকাল সকাল ১০টার দিকে সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের লালবেগ উপকূল থেকে মাইক্রোবাসে করে তাঁদের চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নেওয়া হয়। জাহাজভাঙা কারখানা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২০ জানুয়ারি চীনের উইফং বন্দর থেকে ইউনি হার্ভেস্ট নামের একটি স্ক্র্যাপ জাহাজ বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা দেয়। ১৭ জন চীনা নাবিকসহ জাহাজটি গত শনিবার সীতাকুণ্ড উপকূলে ভেড়ে। তবে এসব নাবিককে তীরে নামতে দেওয়া হয়নি।

সংশ্লিষ্ট জাহাজভাঙা কারখানার মালিক আবুল কাশেম আবদুল্লাহ প্রথম আলোকে বলেন, চীনা নাগরিকেরা ব্যাংকক হয়ে চীনে পৌঁছাবেন।

গতকাল দুপুরে নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশের পরিস্থিতি তুলে ধরেন সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা। তিনি বলেন, দেশে এখনো কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি। এ পর্যন্ত ৫৯ জনের নমুনা (মুখের লালা, রক্ত) পরীক্ষা করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে কোনো আলামত পাওয়া যায়নি।

সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশি আইসিইউতে
৯ জন কোয়ারেন্টাইনে
১৭ চীনাকে ফেরত পাঠাল বাংলাদেশ
দেশে কেউ শনাক্ত হয়নি।

বর্তমানে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১১ জনকে আইসোলেশন ইউনিটে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া আশকোনা হজ ক্যাম্পে চীনফেরত ৩০১ জনকে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে।

মীরজাদী সেব্রিনা বলেন, বেসরকারি হাসপাতালেও করোনাভাইরাসের জন্য পৃথক ইউনিট খোলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর আগে সরকারি হাসপাতালে এ ধরনের ইউনিট খোলার সিদ্ধান্ত হয়।

চীন থেকে বাংলাদেশিদের ফেরত আনা প্রসঙ্গ
অর্থের অভাবে নয়, চীন থেকে বাকি বাংলাদেশিদের সরকারিভাবে অন্য কারণে দেশে আনা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেছেন, অর্থ কোনো সমস্যা নয়। চীনে কোনো উড়োজাহাজ গেলে তার পাইলট ও ক্রুদের অন্য কোনো দেশ আর ঢুকতে দিচ্ছে না। এ কারণেই চীনে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের এ মুহূর্তে দেশে ফেরত আনা যাচ্ছে না।

১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ বিমানের একটি উড়োজাহাজ চীনের উহান থেকে ৩১২ বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে আনে। এ জন্য ৩ কোটি টাকা খরচ হয়েছে এবং তহবিলে এ মারফত আর কোনো টাকা নেই বলে জানিয়েছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

নতুন টিকা
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, নতুন ভাইরাসের জিন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এটি প্রাণী থেকে উৎপত্তি হয়েছে। তবে কোন প্রাণী থেকে উৎপত্তি হয়েছে বা মানুষের মধ্যে ছড়ানোর জন্য কোন প্রাণী মধ্যবর্তী বাহক হিসেবে কাজ করেছে, তার তথ্য এখনো জানা যায়নি। সংস্থাটি আরও বলেছে, চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরের সিফুড মার্কেটটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পুরো এলাকা জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে। পরিবেশদূষণ ঘটায় এমন কিছুর অস্তিত্ব সেখানে বর্তমানে নেই। কিন্তু তারপরও গবেষণা চলছে এটা জানার জন্য যে মানুষের মধ্যে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আগে প্রাণিজগতে আসলে কী ঘটেছিল।

স্বাস্থ্যবিষয়ক বিশ্বের শীর্ষ এই প্রতিষ্ঠান বলছে, এই ভাইরাস প্রতিরোধে টিকা তৈরি করতে কমপক্ষে ১৮ মাস সময় লাগবে। ভাইরাসের বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে জাতিসংঘের সংকটকালীন ব্যবস্থাপনা কমিটিকে সক্রিয় করা হয়েছে। সদস্যদেশগুলোর ল্যাবরেটরিকে শক্তিশালী করতে সহায়তা করা হচ্ছে। ১১ ও ১২ ফেব্রুয়ারি বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ৪০০ বিজ্ঞানী সভা করেছেন। এই সভা থেকে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা ও তথ্য আসতে পারে।

আইইডিসিআরের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এ এস এম আলমগীর বলেছেন, ‘এই রোগের চিকিৎসা হবে লক্ষণভিত্তিক। অন্যান্য ভাইরাস জ্বরে যেমন লক্ষণ দেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়, তেমনি এ ক্ষেত্রেও তাই।

গত ডিসেম্বরে চীনে নতুন করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর গত মঙ্গলবার পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১ হাজার ১১৩ হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে সাড়ে ৪৪ হাজারের বেশি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলেছে, এখন পর্যন্ত ৩০টি দেশ ও অঞ্চলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। চীনের বাইরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ৫০০। এর মধ্যে হংকং ও ফিলিপাইনে দুজন মারা গেছেন। দুজনই চীনের নাগরিক। গত মঙ্গলবার ডব্লিউএইচও এই ভাইরাস থেকে হওয়া রোগটির নতুন নামকরণ করেছে কোভিড-১৯। ‘করোনা’, ‘ভাইরাস’ ও ‘ডিজিজ’—এই তিন শব্দের প্রথম অংশ মিলিয়ে হয়েছে কোভিড। ২০১৯ সালে ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত হওয়ায় রোগের নামের সঙ্গে সংক্ষেপে শুধু ১৯ জুড়ে দেওয়া হয়েছে। এর আগে ভাইরাসটির নাম দেওয়া হয় ‘২০১৯-এনসিওভি’।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি