বুধবার,৫ই আগস্ট, ২০২০ ইং


নবীনগরে করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবতীর মৃত্যুতে আসেনি স্বজনরা, মাওলানার নেতৃত্বে দাফন সম্পন্ন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১০.০৬.২০২০

মো. দেলোয়ার হোসেন, নবীনগরঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে এক যুবতীর মৃত্যুতে যখন স্বজনরা এগিয়ে আসছিলেন না ঠিক সে সময়ে উপস্থিত হলেন মাওলানা মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে উপজেলা আলেম সমাজ নিয়ে গঠন করা করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া মরদেহ দাফন কমিটির সদস্যরা।

আজ বুধবার সকাল ৯টার দিকে নবীনগর পৌর এলাকার মাঝিকাড়া গ্রামে নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তাহসিন আক্তার জনি নামের ওই যুবতী।

জানা যায়, নবীনগর পৌর এলাকার মাঝিকাড়া গ্রামের পরিবহন শ্রমিক জসিম উদ্দিনের মেয়ে তাহসিন আক্তার জনি (৩২) সিলেটে কৃষি বিপনন অধিদপ্তর অফিসে চকিুরীজীবী হিসেবে কর্মরত ছিলো। পরিবারে চার বোনের মধ্যে সবার বড় এবং সংসারে একমাত্র উর্পাজনকারী ছিলেন জনি। গত বৃহস্পতিবার তার কর্মস্থল সিলেট থেকে বাড়িতে আসার পর ঠান্ডা, কাশি, জ্বরে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হন তাহসিন আক্তার। পরে নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকাল ৯টার দিকে করোনা ভাইরাসের ওই সকল উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন তিনি। মারা যাওয়ার পর মৃতের স্বজনরা এগিয়ে না আসায় খবর পেয়ে করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া লাশ দাফন কমিটির প্রধান মাওলানা মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে উপজেলার আলেম সমাজের যুবকদের একটি দল উপস্থিত হন সেই বাড়িতে। পরে দুপুর ১২ টার দিকে সম্পূর্ণ স্বাস্থ্য বিধি মেনে ইসলামী নিয়ম অনুসারে আলীয়াবাদ কেন্দ্রীয় কবরস্থানে লাশের দাফন কার্য সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান মাওলানা মেহেদী হাসান।

এদিকে নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি মেডিকেল টিম করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া তাহসিন আক্তার এর বাড়িতে গিয়ে তার নমুনা সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মো. হাবিবুর রহমান।

নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম বলেন, করোনা রোগীকে যেভাবে দাফন করা হয় সেভাবেই মাওলানা মেহেদীর নেতৃত্বে জানাজা শেষে নবীনগর পৌর এলাকার আলীয়াবাদ কেন্দ্রীয় কবরস্থানে ওই যুবতীর লাশ দাফন করা হয়।

উল্লেখ্য উপজেলায় এ পর্যন্ত করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ইব্রাহিমের এক বৃদ্ধা, শিবপুরের এক স্বাস্থ্যকর্মী কামরুন্নাহার বেগম, বাইশমৌজা আমতলী গ্রামের ব্যবসায়ী আব্দুর রউফ, নবীনগর কলেজ পাড়ার হাজ্বী সামছুল হক, নবীনগর পূর্ব ইউনিয়ন ডোপাকান্দা গ্রামের জজ মিয়ার লাশের দাফন কার্য সম্পন্ন করেছেন মাওলানা মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে দাফন কমিটির দল।

মৃত তাহসিন আক্তার জনি’র লাশ দাফনকালে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন, মুফতি হেদায়েত উল্লাহ, মাওলানা রহমত উল্লাহ, মাওলানা সানাউল্লাহ, মাওলানা নাদিম, মাওলানা একরামুল ইসলাম, মাওলানা জাকারিয়া মাহমুদ, হাফেজ মাওলানা জহির, মোহাম্মদ ওমর, মোহাম্মদ রুবেল আহমেদ, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. আব্দুস সালাম, মাওলানা ফজলুর রহমান, সাংবাদিক জালাল উদ্দিন মনির ও সঞ্জয় শীল।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি