রবিবার,২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং


ছোট শিশুকন্যা নুসরাতকে বাঁচাতে বাবা-মায়ের আকুতি


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২৩.০৯.২০২০

ডেস্ক রিপোর্টঃ

বগুড়ার শেরপুরের রহমাননগর গ্রামের দিনমজুর জাহাঙ্গীর আলম ও নুরনাহার বেগমের দুই বছরের শিশু সন্তান নুসরাত জাহানের হৃদযন্ত্রের (হার্ট) উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রায় ৪-৫ লাখ টাকা প্রয়োজন। গরিব অসহায় পিতা-মাতার পক্ষে এত টাকা খরচ করার সামর্থ্য না থাকায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও সমাজের বিত্তশালীদের কাছে সাহায্য চেয়েছেন।

জানা যায়, উপজেলার গাড়িদহ মডেল ইউনিয়নের রহমাননগর গ্রামের অসহায় দিনমজুর জাহাঙ্গীর আলম ও নুরনাহার বেগমের একমাত্র ছোট শিশু নুসরাত জাহানের হৃদযন্ত্রের (হার্ট) জটিল সমস্যা, রক্তনালীও প্রায় বন্ধ হওয়ায় বাড়ির ভিটা বিক্রি করে ঢাকা হার্ট ফাউন্ডেশনে চিকিৎসা করানো হয়। এতে তার অবস্থার কোনো উন্নতি না হওয়ায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা নুসরাত জাহানকে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য উন্নত দেশে নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এতে প্রায় ৪-৫ লাখ টাকা ব্যয় হবে। কিন্তু এত টাকা নুসরাতের পরিবারের নেই।

অর্থাভাবে বিনা চিকিৎসায় নুসরাত জাহান মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। দরিদ্র পিতা-মাতা দিন-রাত শুধুই চোখের পানি ফেলছেন আর বলছেন- টাকার অভাবে কি তাহলে আমাদের ছোট শিশুকন্যা ধুঁকে ধুঁকে মারা যাবে?

নুসরাতের বাবা জাহাঙ্গীর জানান, আমার একমাত্র সন্তানকে বাঁচাতে আমার সহায় সম্বল যা ছিল সব শেষ করেছি। এখন এত টাকা জোগাড় করা আমার পক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

নুসরাতের মা কাতরকণ্ঠে জানান, আমি আমার জীবনের বিনিময়ে হলেও সন্তানকে বাঁচাতে চাই। তার মুখে আবারও মা ডাক শুনতে চাই। আমার সন্তানকে বাঁচাতে আমাদের টাকা-পয়সা যা ছিল সব শেষ, আমার বুকের ধনকে বাঁচাতে সবার সহযোগিতা চাই। নিষ্পাপ মেয়েটিকে বাঁচাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও সমাজের সব বিত্তশালী ও বিভিন্ন মানবকল্যাণ সংস্থার প্রতি আকুতি জানান মা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি