বৃহস্পতিবার,২৯শে অক্টোবর, ২০২০ ইং


নিখোঁজের দুদিন পর সেপটিক ট্যাঙ্কে মিলল যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১১.১০.২০২০

ডেস্ক রিপোর্ট:

ফেনীতে নিখোঁজের দুদিন পর সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে ইউনুস বাবু (২২) নামের এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শহরের পাঠানবাড়ী রোডের পুরাতন রেজিস্ট্রি অফিস এলাকার তাসপিয়া ভবনের সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে শনিবার ( ১০ অক্টোবর) রাত ১১টার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

ইউনুস বাবু পেশায় একজন বিএসসি ইঞ্জিনিয়ার। তিনি শহরের শাহীন একাডেমি এলাকার বাসিন্দা।

পুলিশ ও স্বজনেরা জানায়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইউনুস বাবু ও তাঁর বন্ধু শাহরিয়ার শহরের পাঠানবাড়ী রোডের তাসপিয়া ভবনের দারোয়ান মোজাম্মেল হক শাহিনের কাছে যান। রাতে চিৎকার-চেঁচামেচি শুনে স্থানীয়রা সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে রক্তাক্ত ও অজ্ঞান অবস্থায় শাহরিয়ারকে উদ্ধার করে। এ সময় সঙ্গে থাকা ইউনুস বাবুর কোনো সন্ধান না পেয়ে গত শুক্রবার রাতে মা রেজিয়া বেগম বাড়িটির কেয়ারটেকার মোজাম্মেল হক শাহিনের বিরুদ্ধে ফেনী মডেল থানায় মামলা করেন।

একপর্যায়ে টানা দুদিন খোঁজ না পেয়ে তিনি ধারণা করেন, ইউনুস বাবুও ওই সেপটিক ট্যাঙ্কে রয়েছেন। পরে শনিবার ( ১০ অক্টোবর) রাত ১১টার দিকে তিনি সেখানে গিয়ে খোঁজ নিয়ে একটি লাশ দেখতে পান। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করলে স্বজনরা ইউনুস বাবুকে শনাক্ত করেন।

ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক আলমগীর জানান, ধারণা করা হচ্ছে, ভবনের কেয়ারটেকার মোজাম্মেল হক শাহিন ও তাঁর সঙ্গী রাকিব নামের এক যুবক মিলে ইউনুস বাবু ও শাহরিয়ারকে কুপিয়ে ম্যানহোলে নিক্ষেপ করেছেন। এ ঘটনায় কেয়ারটেকার শাহিনকে শুক্রবার দুপুরে আটক করা হয়েছে এবং তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি রক্তমাখা চাপাতিও জব্দ করা হয়। তবে কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে খতিয়ে দেখছে পুলিশ। আহত শাহরিয়ার বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি