শনিবার,২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ


সিঙ্গাপুরে বসে নিজ দেশ হামলার পরিকল্পনা করছিলেন বাংলাদেশি ফয়সাল


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২৫.১১.২০২০

ডেস্ক রিপোর্টঃ

সিঙ্গাপুরে বসে নিজ দেশ হামলার পরিকল্পনা করছিলেন বাংলাদেশি ফয়সাল।সন্ত্রাসবাদ সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ততার অভিযোগে সিঙ্গাপুরে আহমেদ ফয়সাল নামে এক বাংলাদেশি গ্রেপ্তার হয়েছেন। চলতি মাসের শুরুর দিকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার ( ২৪ নভেম্বর) সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতির বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম স্ট্রেইট টাইমস এক প্রতিবেদেন এ তথ্য জানিয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশে ফিরে পুলিশের ওপর হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছিলেন ফয়সাল।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু হিন্দু পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলা চালানোর পাশাপাশি কাশ্মীরে যাওয়ারও পরিকল্পনা ছিল ফয়সালের। তিনি ধর্মীয় চরমপন্থায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সহিংস কর্মকাণ্ড ঘটাতে চেয়েছিলেন বলেও অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিভাগের প্রাথমিক তদন্তের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ আছে।

নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে ২০১৭ সালের প্রথম দিকে বাংলাদেশ থেকে সিঙ্গাপুরে যান ফয়সাল। আইএসের অনলাইন প্রচারণায় প্ররোচিত হয়ে পরের বছরই চরমপন্থার দিকে ঝুঁকে পড়েন তিনি। ইউরোপে সাম্প্রতিক সহিংসতার প্রেক্ষাপটে সিঙ্গাপুরে সন্দেহভাজন ৩৭ জনের ওপর তদন্ত চালানো হয়। এতে দেখা যায়, ফয়সাল বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর হামলা এবং কাশ্মীরে গিয়ে লড়াই করার পরিকল্পনা করছিলেন।

ফয়সালের কাছ থেকে দুটি ছোরা উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানে সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র ও আইনমন্ত্রী কে শানমুগাম বলেন, ফয়সাল এসব ছোরা বাংলাদেশে নিয়ে হিন্দু পুলিশ কর্মকর্তাদের ওপর হামলা করতে চেয়েছিলেন। তবে তদন্তে তার বিরুদ্ধে সিঙ্গাপুরে সহিংস কর্মকাণ্ড চালানোর পরিকল্পনার প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২ নভেম্বর গ্রেপ্তার হওয়া ফয়সাল মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের অনলাইন প্রচারণায় প্ররোচিত হয়ে পড়েছিলেন। তিনি সহিংসতায় উসকানিমূলক তথ্য প্রচারের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন। ভাজ করে সহজে বহন করা যায় এমন দুটি ছুরিও তিনি সংগ্রহ করেছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদে সহিংসতার কাজে ব্যবহারের জন্যই ছুরি সংগ্রহ করেছিলেন বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের উপকমিশনার সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রকাশিত খবরের বিষয়টি তারা গুরুত্ব দিয়ে খোঁজ নিচ্ছেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি