রবিবার,১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ


অ্যাওয়ারনেস ৩৬০-এর উপদেষ্টা হলেন ৩ জন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
৩১.০৭.২০২১

ফিচার ডেস্ক:

বৈশ্বিক অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ‘অ্যাওয়ারনেস ৩৬০’-এর উপদেষ্টা হিসেবে যুক্ত হয়েছেন কিংবদন্তি বাস্কেটবল রেফারি বব ডিলানি, রয়্যাল চ্যারিটি ডায়ানা অ্যাওয়ার্ডের প্রধান নির্বাহী টেসি ওজো এবং জনপ্রিয় ব্রিটিশ অভিনেতা কেল স্পেলম্যান।

২ বাংলাদেশি উদ্যোক্তা শমী হাসান চৌধুরী ও রিজভী আরেফিনের হাতে গড়া এ প্রতিষ্ঠানকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে এবার কাজ করতে যাচ্ছেন জনপ্রিয় এ ৩ ব্যক্তিত্ব। এমনটিই জানানো হয়েছে প্রতিষ্ঠানের ১ বিবৃতিতে।

সূত্র জানায়, হাত ধোয়া, স্যানিটেশন সচেতনতা, স্বাস্থ্য ভালো রাখাসহ বস্তিতে থাকা মানুষের মধ্যে আচার, ব্যবহার, সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশে কাজ করা এ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে অনুভূতি প্রকাশ করেছেন নতুন উপদেষ্টারা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সির সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ও কিংবদন্তি বাস্কেটবল রেফারি বব ডিলানি এক ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘অ্যাওয়ারনেস ৩৬০ টিমের অংশ হওয়া দারুণ ব্যাপার। এটি আমার জন্য সৌভাগ্যের ব্যাপার। এর সঙ্গে বয়সের কোনো সম্পর্ক নেই। আমরা একজন আরেকজন থেকে শিখবো, জানবো। আমি কাজ করার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।’

অনুপ্রেরণীয় সিভিল সোসাইটির লিডার ও রয়্যাল চ্যারিটি ডায়ানা অ্যাওয়ার্ডের প্রধান নির্বাহী টেসি ওজো উপদেষ্টা হিসেবে যোগদান করে বলেন, ‘আমি অবিশ্বাস্যভাবে খুশি এবং সম্মানিত হয়েছি এ প্রতিষ্ঠানের উপদেষ্টা হিসেবে যুক্ত হতে পেরে। আমার বিশ্বাস আছে অ্যাওয়ারনেস ৩৬০-এর লিডারশিপ টিমের ওপর। আমি বিশ্বাস করি, তারা ভালো কাজ করবেন। আমি এ যাত্রার অংশ হতে এসেছি। চলুন একসাথে পরিবর্তন করি।’

অনুভূতি প্রকাশ করেছেন ম্যানচেস্টারে জন্ম নেওয়া জনপ্রিয় ব্রিটিশ অভিনেতা কেল স্পেলম্যানও। তিনি বলেন, ‘আমি তেমনটি কৃতজ্ঞ; যেমনটি আপনারা আমাকে পেয়ে হয়েছেন। আমি অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি, আমরা একসাথে কী করতে পারি সেটা দেখার জন্য। অ্যাওয়ারনেস ৩৬০ অনেক ভালো কাজ করছে। আমার বিশ্বাস, আমরা বিশ্বকে বদলে দেবো।’

জলবায়ু পরিবর্তন ও সামাজিক ন্যায় বিচার নিয়ে কাজ করা এ অভিনেতা আরও বলেন, ‘অ্যাওয়ারনেস ৩৬০ সম্পর্কে তাদের কাজই তাদের হয়ে কথা বলছে। ধন্যবাদ অ্যাওয়ারনেস ৩৬০-এর সবার প্রতি। আমি বলতে পারি, বিশ্বের একটি দারুণ জায়গা এবং সব মেধাবী লোক এখানে যুক্ত আছেন।’

উল্লেখ্য, ২ বাংলাদেশি উদ্যোক্তার গড়া এ বৈশ্বিক অলাভজনক প্রতিষ্ঠান শুরু থেকেই অত্যন্ত সুনামের সাথে কাজ করে আসছে। জাতিসংঘের এসডিজি নিয়ে বিশ্বের ২৩ টি দেশে কাজ করা এ প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ২৬ বছর বয়সী শমী এবং সহ-প্রতিষ্ঠাতা রিজভী উঠে এসেছেন মার্কিন প্রভাবশালী ম্যাগাজিন ফোর্সবের ৩০ বছরের কম বয়সী এশীয় অঞ্চলের ৩০০ তরুণের তালিকায়!

এর আগে প্রতিষ্ঠাতা শমী পুরস্কার গ্রহণ করেছিলেন প্রিন্সেস ডায়ানার ভাই লর্ড স্পেন্সার থেকে। কেনসিংটন প্যালেসে প্রিন্স উইলিয়ামের সঙ্গে দেখা করার আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন। ২০২০ সালে ডায়ানা অ্যাওয়ার্ডের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার থেকেও স্বীকৃতি পাওয়ার মত ঘটনাও উল্লেখযোগ্য।

অন্যদিকে সহ-প্রতিষ্ঠাতা রিজভী আরেফিন সম্প্রতি পুরস্কৃত হয়েছেন ডায়ানা অ্যাওয়ার্ডে। এছাড়া টার্গেট জেন্ডার ইক্যুয়ালিটি কো-অর্ডিনেটর হিসাবে যোগদান করেছেন জাতিসংঘের গ্লোবাল কমপ্যাক্টে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি