শুক্রবার,৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ


চলেই গেলেন বলিউড বর্ষীয়ান অভিনেতা বিক্রম গোখলে


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২৬.১১.২০২২

ডেস্ক রিপোর্ট:

বেশ কয়েক দিন ধরে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছিলেন বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা বিক্রম গোখলে (৭৭)। তবে আজ শনিবার পুনের দীনানাথ মঙ্গেশকর হাসপাতালে তিনি মারা গেছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, গত ১৮ দিন ধরেই পুনের এ বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন বিক্রম গোখলে। গত বুধবার সন্ধ্যায় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। তারপর তাকে ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। আর বুধবার মধ্যরাতে গুজব ছড়ায় তিনি মারা গেছেন। পরে বিক্রম গোখলের স্ত্রী বলেছিলেন, এখনো লড়াই চালাচ্ছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা।

এরপর গতকাল শুক্রবার বিক্রমরে শারীরিক পরিস্থিতির সামান্য উন্নতি হয়েছিল। কিন্তু শনিবার সব লড়াইয়ে ইতি টেনে না ফেরার দেশে চলে গেলেন ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ খ্যাত অভিনেতা।

বিক্রম গোখলে অভিনেতার পাশাপাশি পরিচালকও ছিলেন। মঞ্চনাটকের সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন তিনি। পুনেতে একটি অ্যাক্টিং অ্যাকাডেমি রয়েছে তার।

বিক্রম গোখলে ১৯৪০ সালের ১৪ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। ছোট থেকেই অভিনয়ের জগতেই বড় হয়েছেন তিনি। তার বাবা চন্দ্রকান্ত গোখলে মারাঠি থিয়েটার এবং সিনেমার উল্লেখযোগ্য নাম। শুধু তাই নয়, তার প্রপ্রিতামহী দুর্গাবাই কামাথ ছিলেন ভারতীয় চলচ্চিত্রের প্রথম অভিনেত্রী।

পূর্বপুরুষদের পদচিহ্ন অনুসরণ করে ১৯৭১ সালে চলচ্চিত্রের দুনিয়ায় পদার্পণ করেন বিক্রম। তার প্রথম ছবি ছিল ‘পরওয়ানা’। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।

হিন্দির পাশাপাশি মরাঠি চলচ্চিত্রেরও উল্লেখযোগ্য নাম বিক্রম গোখলে। দীর্ঘ অভিনয় জীবনে নিজ অভিনয় দক্ষতায় দর্শক মনে ছাপ ফেলেছেন তিনি। অমিতাভ বচ্চনের ‘অগ্নিপথ’ থেকে সালমান-ঐশ্বরিয়ার ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে অভিনয় করে নিজের জাত চিনিয়েছেন তিনি। ‘মিশন মঙ্গল’, ‘হিচকি’, ‘আইয়ারি’, ‘ব্যাং ব্যাং’-এর মতো ছবিতে দর্শক দেখেছে তাকে।

দীর্ঘ ৫০ বছরের অভিনয় জীবনে ছোটপর্দাতেও কাজ করেছেন বিক্রম গোখলে। ‘সঞ্জীবনী’, ‘বিরুদ্ধ’, ‘জীবন সাথী’, ‘সিংহাসন’-এর মতো ধারাবাহিকে কাজ করেছেন তিনি। মরাঠি ছবি ‘অনুমতি’র জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন এ অভিনেতা। শেষবার তাকে পর্দায় দেখা গিয়েছে মরাঠি ছবি ‘গোদাবরী’তে। অন্যদিকে শিল্পা শেট্টি-অভিমন্যু দাসানির ‘নিকম্মা’ বিক্রম গোখলে অভিনীত শেষ হিন্দি ছবি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি