বৃহস্পতিবার,২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • প্রচ্ছদ » রাজনীতি » রাজনীতির নামে সন্ত্রাস করছে যারা তাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা নয়: হানিফ


রাজনীতির নামে সন্ত্রাস করছে যারা তাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা নয়: হানিফ


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৪.১১.২০২৩

ডেস্ক রিপোট:

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, রাজনীতির নামে যারা সন্ত্রাস করছে তাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা নয়। আগে পিটিয়ে পুলিশ হত্যা, আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা ও সাংবাদিকের ওপর হামলার অপরাধ স্বীকার করতে হবে।

এগুলো বন্ধ করতে হবে। এর জন্য জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। তারপর আওয়ামী লীগ বিবেচনা করে দেখবে আলোচনায় বসা যায় কিনা।

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ (কুষমেক) হাসপাতাল উদ্বোধন উপলক্ষে হাসপাতালের সামনে আলোচনা সভায় হানিফ এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, এখন বিদেশি প্রভূদের দিয়ে শর্তহীন আলোচনার আহবান জানিয়েছেন। শর্তহীন আলোচনার কথাতো আগেই আমরা বলেছিলাম। তখন বিদেশি প্রভূদের সহায়তায় সরকারের পতন ঘটাতে পারবেন আশা করে আপনারা আসেননি। ২৮শে অক্টোবরে একটা বড় ধাক্কা খাওয়ার পর এখন বসার প্রস্তাব দিচ্ছেন বিদেশি প্রভূর মাধ্যমে।

হানিফ বলেন, রাজনৈতিক কর্মসূচিকে স্বাগত জানাই। তবে, সন্ত্রাসীকে ছাড় দিতে রাজি নই। আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা বরদাশত করা হবে না। তিনি বলেন, ১৬ তারিখে কমিশন জাতীয় নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করতে পারে। এখন এই নির্বাচন বানচালের চেষ্টা চলছে। তিনি বলেন, নির্বাচন যথাসময়ে এবং সুষ্ঠু-অংশগ্রহণমূলক হবে। কারণ নির্বাচন নিয়ে আমাদের শংকা নেই। দেশে যে উন্নতি করা হয়েছে তা অবাক করার মতো। জনগণের সমর্থন আমাদের পক্ষেই থাকবে। তাই সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে আমাদের ভয় নেই। যাদের জনসমর্থন নেই তারা সংবিধান বহির্ভূত দাবি নিয়ে নির্বাচন বানচালের জন্য মাঠে নেমেছে।

হানিফ আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছেন। তিনি কুষ্টিয়ায় ৫০০ শয্যার মেডিকেল কলেজ দিয়েছেন, তিনি আরো উন্নয়ন করবেন।

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ, সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মারুফ হাসান, জেলা প্রশাসক এহতেশাম রেজা, পুলিশ সুপার আবদুর রকিবসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।

এর আগে সকাল ১০টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কুষমেক হাসপাতালের বহির্বিভাগের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেসময় কুষ্টিয়া প্রান্তে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি, ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, জেলা প্রশাসক এহতেশাম রেজাসহ জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনী ঘোষণার পর কুষমেক ক্যাম্পাসে শেখ হাসিনার পক্ষে উদ্বোধনী ফলক উম্মোচন করেন সংসদ সদস্যরা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি