বৃহস্পতিবার,১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


মালয়েশিয়ায় এক বাংলাদেশি নারীকে অপহরণ, গ্রেফতার ২


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৫.০৬.২০২৪


ডেস্ক রিপোর্ট:

মালয়েশিয়ায় এক বাংলাদেশি নারীকে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। এ ঘটনায় অপহরণকারী স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদিকে অপহৃত বাংলাদেশি নারীকেও উদ্ধার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানী কুয়ালালামপুরের বুকিত বিনতাংয়ের একটি হোটেলে ভুক্তভোগীর বোন এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতরা হলেন- বাংলাদেশি প্রবাসী দম্পতি মো. শিহাব (পাসপোর্ট নং B00590487) এবং তার স্ত্রী নূপুর সুলতানা। বর্তমানে তারা রিমান্ডে রয়েছেন। অপহরণের সঙ্গে জড়িত টিকটকার মো. হৃদয় পলাতক ও অপহৃত উম্মে রাইজাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী জান্নাতুল নাঈমা সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমার চাচাতো বোন উম্মে রাইজাকে ট্যুরিস্ট ভিসায় মালয়েশিয়া এনে অপহরণকারী চক্র তাকে কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে থেকে এক অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

অপহরণকারী চক্রের মূলহোতা শিহাব মোবাইল ফোনে ৫ লাখ টাকা দাবি করেন। পরে বাংলাদেশ কমিউনিটির এক নেতার মাধ্যমে ১ লাখ টাকা দেওয়া হয়। তখন শিহাব আরও চার লাখ টাকা দাবি করেন। ওই টাকা না দিলে উম্মে রাইজাকে অন্যত্র বিক্রি করে দেবেন বলে হুমকি দেন। উম্মে রাইজাকে চারদিন আটকে রেখে শারীরিক নির্যাতন চালান শিহাব ও তার সহযোগীরা। অপহরণকারীরা এখানেই ক্ষান্ত থাকেনি। মুক্তিপণ না দিলে ভুক্তভোগী জান্নাতুল নাঈমার ৫ বছরের শিশুকে নিয়ে বিক্রি করে দেবে বলে হুমকি দেন তারা। পরে কুয়ালালামপুরের দাংওয়াঙ্গি থানায় ভুক্তভোগী জান্নাতুল নাঈমা বাদী হয়ে মামলা করলে পুলিশ শিহাব ও তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়। তাদের সহযোগী টিকটকার হৃদয় পলাতক রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী জান্নাতুল নাঈমা আরও বলেন, আমার ও সন্তানের জীবন নিয়ে শঙ্কিত। আমি এ ব্যাপারে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ কমিউনিটি, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি