রবিবার,২৯শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ


ভ্রমণে শিশুকেও সঙ্গে নিন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৯.০৩.২০১৭


পূর্বাশা ডেস্ক:

প্রত্যেক মানুষের জন্য ভ্রমণ গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। ভ্রমণ মানুষের জীবন ও মন পরিবর্তনে বিশেষ ভূমিকা রাখে। তবে কোন বয়স থেকে ভ্রমণ করা উচিত? এমন কোনো নিয়ম আছে কি না। নাকি ভ্রমণে যেতে প্রাপ্তবয়স্ক হতে হয়।

এক গবেষণায় দেখা গেছে, শিশুর জন্যও ভ্রমণ করা উত্তম। কেননা এ সময় ওদের মস্তিষ্কে অনেক গ্রহণ ক্ষমতা থাকে। যদিও শিশুদের নিয়ে ভ্রমণ সহজ কোনো বিষয় নয়। তবুও ওদের নিয়ে ভ্রমণ করা জরুরি।

উদারতা বৃদ্ধি
নতুন মানুষ ও নতুন জায়গায় ভ্রমণের কারণে শিশুর মন উদার হবে। ফলে বিভিন্ন পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া সবাইকে সম্মান করা, অন্যের সিদ্ধান্তকে গ্রহণ করার মতো মানসিকতাও তৈরি হবে।

বন্ধন দৃঢ় হয়
ভ্রমণে পরিবারের সবাই একসঙ্গে দীর্ঘ সময় কাটানোর সুযোগ পায়। ফলে পারিবারিক বন্ধন দৃঢ় হয়।

মানসিক বিকাশ
শিশুরা কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইলসহ বিভিন্ন টেকনোলজি-নির্ভর হয়ে পড়ছে। তাই ভ্রমণ আসল পৃথিবীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে পারে।

নতুন অভিজ্ঞতা
ভ্রমণ শিশুদের নতুন স্থান, ভাষা, মানুষ ও তাদের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়। যা শিশুর অভিজ্ঞতার ভাণ্ডারকে সমৃদ্ধ করে।

পরিশ্রমের গুরুত্ব
ভ্রমণ কখনো বিনা পয়সায় হয় না। এজন্য প্রয়োজন মোটা অঙ্কের টাকা। শিশুটি যখন দেখবে, ভ্রমণে অনেক খরচ হয়। ফলে সে কাজের প্রতি আরো সচেতন হবে এবং ভবিষ্যতে কঠোর পরিশ্রমী হবে।

সমবেদনা তৈরি
বিলাসবহুল জীবন-যাপন করা মানে ভ্রমণ নয়। সমাজে কোনটি গ্রহণযোগ্য ও কোনটি বর্জনীয় তা জানা যায় ভ্রমণের মাধ্যমে। ভ্রমণের মাধ্যমে সমবেদনার আসল মানে উপলব্ধি করে জীবন-যাপন করতে শেখা যায়।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি