বৃহস্পতিবার,১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


বাজেটের প্রভাব পড়ছে বাজারে


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৪.০৬.২০১৭

পূর্বাশা ডেস্ক:

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন বাজারে আগামী অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেটের প্রভাব এরই মধ্যে পড়তে শুরু করেছে। যদিও আগামী ১ জুলাই থেকে বাজেট কার্যকর হওয়ার কথা থাকলেও কিন্তু বাজেটে নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক বাড়ানোর ঘোষণার পর রড, সিমেন্ট, ঢেউটিন, প্রিন্টিং প্লেটসহ মসলাজাতীয় বেশকিছু পণ্যের দাম এরই মধ্যে বেড়ে গেছে।

জানা গেছে, ইস্পাতপণ্য ও সিমেন্ট সবচেয়ে বেশি জটিলতায় পড়েছে। অবকাঠামো নির্মাণের মূল উপাদান রড ও সিমেন্ট বিক্রিতে নেতিবাচক প্রবণতা দেখা গেছে। একদিনের ব্যবধানে রডের দাম বেড়েছে টনে সর্বোচ্চ আড়াই হাজার টাকা। বস্তাপ্রতি ১০-১৫ টাকা বেশি দামে বিক্রি হতে দেখা গেছে সিমেন্ট।

বাজেটের আগে ৪০ গ্রেডের প্রতি টন রডের দাম ছিল ৪০ হাজার টাকা। বর্তমানে তা ৪২ হাজার থেকে সাড়ে ৪২ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৬০ গ্রেডের প্রতি টন রডের দাম ছিল ৪৮ হাজার টাকা। বাজেট ঘোষণার পর একই রড বিক্রি হচ্ছে ৫০ হাজার থেকে ৫০ হাজার ৫০০ টাকায়।

বায়েজিদ স্টিলের বিক্রয় বিভাগের কর্মকর্তা মো. রাশেদ বলেন, শনিবার রডের বাজারে লেনদেন ছিল খুবই কম। অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানই ভ্যাট আরোপের ফলে পণ্য বিক্রিতে অনীহা প্রকাশ করেছে। তবে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে বিষয়টি সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা পাওয়া গেলে পণ্যের দাম স্বাভাবিকভাবেই বাড়বে।

এদিকে বাজেটে নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক বাড়ানোর ঘোষণায় বেড়ে গেছে প্রিন্টিং প্লেটের দাম। বর্ষা মৌসুম হওয়ায় ঢেউটিনের বাজারে বিক্রয় মন্দা থাকা সত্ত্বেও বাজেটের প্রভাবে দাম বেড়েছে নির্মাণসামগ্রীটির। আমদানিকৃত কাপড়ের ওপর শুল্ক আরোপের ফলে বেশি দামে পোশাক বিক্রি হচ্ছে বলে জানা গেছে। এছাড়া প্রভাব পড়তে শুরু করেছে মসলাজাতীয় পণ্যের বাজারেও। মসলাজাতীয় পণ্যের সম্পূরক শুল্ক দ্বিগুণ করার একদিনের ব্যবধানে জিরার দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ টাকা।

বাজেট ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে মূল্যবৃদ্ধির প্রবণতার বিষয়ে সরকার কঠোর অবস্থান নেবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। তাদের দাবি, বাজেট বাস্তবায়নের আগেই দাম বাড়ানোর এ প্রবণতা ব্যবসায়ীদের অতিরিক্ত মুনাফার কৌশল।

পূর্বাশানিউজ/০৪-জুন,২০১৭/রুমকী

 



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি