মঙ্গলবার,২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


দুবাইয়ের পতিতা চক্র থেকে বাংলাদেশি কিশোরী উদ্ধার


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৫.০৬.২০১৭

পূর্বাশা ডেস্ক:

বিউটিশিয়ান হিসেবে কাজ করার কথা বলে বাংলাদেশি দুই কিশোরীকে বাধ্য করা হয়েছিল পতিতাবৃত্তিতে। ১৫ ও ১৬ বছর বয়সী ওই দুই কিশোরীকে উদ্ধার করে দোষীদের আইনের আওতায় এনেছে দেশটির আইন শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী।

গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৫ সালের এপ্রিলে ওই দুই কিশোরীকে দুবাইতে বিউটিশিয়ান হিসেবে কাজ করার কথা বলে নিয়ে যায় দুই বাংলাদেশি। এরপর তাদেরকে একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়ন শেষে বাধ্য করা হয় ‘স্পা’ এর কাজ করতে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, এক দিন ১৬ বছর বয়সী ওই কিশোরী বন্দিদশা থেকে বেরিয়ে পুলিশকে এ ঘটনা জানালে পুলিশ ওই দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে তাদের বিরুদ্ধে ওই দুই কিশোরীকে ঠকানোর অভিযোগ আনে।

পরবর্তীতে দুবাই পুলিশের মানবপাচার বিভাগের একটি দল ওই ফ্ল্যাটটিতে অভিযান চালিয়ে ১৫ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি কিশোরীসহ আরও কয়েকজনকে উদ্ধার করে যাদের প্রত্যেককেই পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করা হচ্ছিল।

এ ঘটনায় দুবাইয়ের একটি আদালত এক বাংলাদেশিকে সাত বছরের জেল এবং অপরজনকে অভিযোগ থেকে মুক্তি দিয়েছে।

৬২ বছর বয়সী এক চীনা ব্যবসায়ী ওই ফ্ল্যাটটি ভাড়া নিয়ে পতিতা ব্যবসা চালাচ্ছিলেন যা পরবর্তীতে পুলিশের অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসার পর তাকেও গ্রেফতার করা হয়। মেয়েদের জোর করে পতিতাবৃত্তি করানোয় তাকে সাজা দিয়েছেন আদালত।

পূর্বাশানিউজ/০৫-জুন,২০১৭/রুমকী

 



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি