রবিবার,১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ


ক্ষমা না চাইলে জাভেদ আখতারের কোনো সিনেমা ভারতে চলবে না


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৫.০৯.২০২১

বিনোদন ডেস্ক:

মহারাষ্ট্রের বিজেপি বিধায়ক ও দলীয় মুখপাত্র রাম কদম। শনিবার (৪ সেপ্টাম্বর) রাতে এক ভিডিও বার্তায় জনপ্রিয় কবি-গীতিকার জাভেদ আখতারের তুমুল সমালোচনা করেন। বিজেপি নেতা বলেন, ‘জাভেদ আখতারের কোনো সিনেমা এ দেশে দেখানো যাবে না।’

স্বাভাবিকভাবেই তার এই মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। অনেকে এই ঘোষণাকে কট্টর মৌলবাদের আক্রমণ বলেও মনে করছেন। যার সাহস বাড়িয়েছে বিজেপি সরকার।

কয়েক দিন আগে ভারতে এক সংবাদমাধ্যমে জাভেদ আখতার সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় তিনি বলেছিলেন, ‘আরএসএস, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ এবং বজরং দলের সঙ্গে তালেবানের খুব বেশি পার্থক্য নেই। সবাই ধর্মান্ধ, মৌলবাদে দুষ্ট’।

তিনি আরও বলেন, ‘গোটা বিশ্বের দক্ষিণপন্থীদের মানসিকতা একই ধরনের। তালেবান মুসলিম রাষ্ট্র চায়। অনেকেই আছে যারা হিন্দু রাষ্ট্র গঠনের দাবি জানান। এদের ভাবনাচিন্তা একই ধরনের। সে তারা মুসলিম হোক, হিন্দু হোক বা ইহুদি হোক। এরা সকলেই সমান।’

এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে জাভেদ আখতার আরও বলেন, ‘তালেবান কট্টরপন্থী। আরএসএস, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ কিংবা বজরং দলকে সমর্থন করে, তারাও একইরকম।’

এই বিতর্কের কারণে জাভেদ আখতার যুক্ত রয়েছেন এমন সিনেমা ভারতে দেখানো যাবে না বলে ফতোয়া জারি করলেন বিজেপির অন্যতম মুখপাত্র রাম কদম। তিনি বলেন, ‘যতক্ষণ না উনি হাতজোড় করে সংঘের কাছে ক্ষমা চাইছেন, ততক্ষণ তার কোনও সিনেমা ভারতে দেখাতে দেয়া হবে না।’

কবি তথা গীতিকার জাভেদ আখতারের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে রাম কদম আরও বলেন, ‘এ ধরনের মন্তব্য করার আগে তার আরও ভাবা উচিত ছিল। গোটা বিশ্বে এই প্রতিষ্ঠানের বহু সমর্থক ছড়িয়ে রয়েছে। যারা নিজের জীবন বাজি রেখে সেবা কার্য চালিয়ে যাচ্ছেন। জাভেদ আখতারের কথায় তারা আঘাত পেয়েছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ কথাটা বলার আগে তার ভাবার দরকার ছিল যে, এদেশে এই ভাবধারার মানুষেরাই সরকার চালাচ্ছে। রাজধর্ম পালন করছে। তাদের মানসিকতা সত্যি যদি তালেবানের মতো হতো, তাহলে কি উনি এরকম মন্তব্য করতে পারতেন।’



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি