সোমবার,২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ


সাবেক এমপি জ্যোতির ৭ বছরের কারাদণ্ড, ৫৩ লাখ টাকা বাজেয়াপ্ত


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৯.০৫.২০২২

ডেস্ক রিপোর্টঃ

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে করা দুর্নীতির মামলায় বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য নূর আফরোজ বেগম জ্যোতিকে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) বিকাল সাড়ে ৪টায় বগুড়ার স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এমরান হোসেন চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণার পর আদালতে উপস্থিত আসামি বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য নূর আফরোজ বেগম জ্যোতিকে কারাগারে নেওয়া হয়।

মামলার এজাহারে জানা যায়, সাবেক সংসদ সদস্য নূর আফরোজ বেগম জ্যোতি বগুড়া শহরের কাটনারপাড়ার প্রফেসর আব্দুর রউফের স্ত্রী। ছাত্র জীবন থেকে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন তিনি। বগুড়া জেলা মহিলা দলের সভাপতি হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন।

পরে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও বগুড়া জেলা বিএনপির সাবেক উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেন। ২০০১-২০০৬ সাল পর্যন্ত জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন তিনি। ২০১৩ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় বগুড়ায় স্থাবর-অস্থাবর ও দায় দেনার হিসাব দাখিল করেন।

বিবরণীতে ২৮ লাখ ১৭ হাজার ১৮৪ টাকা মূল্যের সম্পদ অর্জনের মিথ্যা তথ্য প্রদান করেন। তিনি অসাধু উপায়ে অর্জিত ও জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ ৫৩ লাখ ২২ হাজার ৭৯০ টাকা সমমূল্যের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি অর্জন করে নিজের দখলে রেখে ভোগ দখল করে আসছেন মর্মে দুদক তথ্য পায়।

এ ঘটনায় গত ২০১৪ সালের ১৫ ডিসেম্বর বগুড়া সদর থানায় তৎকালীন দুদকের জেলা কার্যালয়ের ফারুক হোসেন নামের এক কর্মকর্তা বাদী হয়ে মামলা করেন। তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ২২ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনজীবী এসএম আবুল কালাম আজাদ জানান, দুর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। ২০১৭ সালে এ মামলার বিচারকাজ শুরু হয়। এরপর চলতি বছরের ১১ মে যুক্তিতর্ক শুনানি ছিল। পরে এ মামলার রায় ঘোষণার জন্য ১৯ মে তারিখ ধার্য করেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি