শনিবার,২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ


কুমিল্লার দাউদকান্দিতে চাকরির প্রলোভনে তরুণীকে ধর্ষণ


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২০.০৯.২০২২

ডেস্ক রিপোর্ট:

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে চাকরির প্রলোভনে বন্ধুর সখ্যতায় পরে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী(১৮)। গতকাল সোমবার বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে উপজেলার পশ্চিম হুগুলিয়া গ্রামের পতিত জমির জঙ্গলে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আজ মঙ্গলবার সকালে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে দাউদকান্দি মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

খবর পেয়ে পুলিশ অভিযুক্ত ৬ জনের মধ্যে ৩ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারা হলেন, মিরাজুল ইসলাম মিরাজ(১৯), অপু(২৬) ও মোখলেছ (২৫)। তারা সবাই কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার পশ্চিম হুগুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

কুমিল্লা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো.ফয়েজ ইকবাল জানান, গত দুদিন ধরে মিরাজুল ইসলাম মিরাজের সঙ্গে চাকরির প্রলোভনে সখ্যতা তৈরী হয় ভুক্তভোগী তরুণীর। ঘটনার দিন মিরাজ, অপু ও মোখলেছসহ আরও ৩জন মিলে ভুক্তভোগীতে হুগুলিয়া গ্রামের পতিত জমির জঙ্গলের নিয়ে গিয়ে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন। পরে ভিকটিমকে অচেতন অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যায় ধর্ষকরা।

স্থানীয়ভাবে খবর পেয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে দাউদকান্দি মডেল থানা পুলিশ। ভিকটিমকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে উন্নত চিকিৎসা ও শারীরিক পরীক্ষার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও জানান, তরুণীর দেওয়া তথ্যে অভিযুক্ত মিরাজকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে মিরাজের তথ্য অনুযায়ী অপু ও মোখলেছকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছেন।

দাউদকান্দি মডেল থানার অফিসার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর ভূঞা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে শিশু ও নারী নির্যাতন আইনে থানায় একটি মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকী আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি