বুধবার,২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে ৪ দিন ধরে এক নারীর অনশন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১০.০৫.২০২৪

ডেস্ক রিপোর্ট:

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবি করে চারদিন ধরে এক নারী অনশন করছেন। গত সোমবার থেকে ওই নারী উপজেলার হেসাখাল ইউনিয়নের উরুকচাউল গ্রামের আরিফের (২১) বাড়িতে অনশন শুরু করেন।

আজ শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে ওই নারীকে অনশনরত অবস্থায় দেখা যায়। ভুক্তভোগী নারীর বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর সোলতান চৌরাস্তা এলাকায় বলে জানা যায়।

অনশনরত নারী ও স্থানীয়রা জানান, ইমো অ্যাপের মাধ্যমে ওই নারীর সঙ্গে আরিফের প্রেমের সম্পর্ক হয়। তার ৬ মাসের মধ্যে দুজনের ঢাকায় দেখা হয়। একপর্যায়ে আরিফ তার বিভিন্ন স্বজনদের বাড়িতে নিয়ে ওই নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেন।

অনশনরত নারী বলেন, ‘চলতি মাসের ৬ মে সোমবার আরিফ ময়মনসিংহ থেকে নাঙ্গলকোটের উরুকচাউল গ্রামে নিয়ে আসলে তার বাবা আবদুস ছাত্তার দুজনকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। এরপর আরিফ তাকে নাঙ্গলকোট রেলস্টেশনে রেখে পালিয়ে যায়। সেদিন থেকেই আমি তাদের বাড়িতে এসে অনশন শুরু করি।’

স্থানীয় সুমন বলেন, মেয়েটি এখানে অসহায়। এলাকাবাসীর দাবি মেয়েটি স্ত্রীর স্বীকৃতি পেয়ে এখানে থাকুক।

স্থানীয় আলমগীর হোসেন জানান, গত ৪ দিন আগে মেয়েটিকে আরিফ নিয়ে আসে। তার মা-বাবা মেয়েটিকে জায়গা না দিলে তার বাড়িতে ৩

দিন আশ্রয় দেন। মেয়েটি পুনরায় আরিফের বাড়িতে গেলে তারা নির্যাতন করে বাড়ি থেকে বের করে দেন। বর্তমানে ওই নারী আরিফের বাড়িতেই অবস্থান করছেন।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত আরিফ পলাতক থাকায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

আরিফের মা সেলিনা বেগম বলেন, তার ছেলে পলাতক। মেয়েটি যদি বিয়ের প্রমাণ দেখাতে পারে, তাহলে পুত্রবধূ হিসেবে মেনে নেব।

নাঙ্গলকোট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, অনশনের বিষয়টি কেউ তাকে জানায়নি। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে জেনেছি। মেয়েটি ছেলের বাড়িতে চলে এসেছে। বিস্তারিত খোঁজ নিচ্ছি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি