রবিবার,১৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ


সমালোচনায় কোহলির অধিনায়কত্ব!


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০১.০৫.২০২১

স্পোর্টস ডেস্কঃ

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে হারিয়ে এবারের আইপিএল মিশন শুরু করেছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। নিজেদের প্রথম ছয় ম্যাচে ৫টি জিতে রীতিমতো উড়ছিল তারা।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে জয় পেলে টেবিলের শীর্ষে উঠে যেত বিরাট কোহলির দল।

কিন্তু তাদের সেই লক্ষ্য পূরণ করতে দেয়নি পাঞ্জাব। উড়ন্ত ব্যাঙ্গালুরুকে রীতিমতো বিধ্বস্ত করে আসরে নিজেদের তৃতীয় জয় তুলে নিয়েছে লোকেশ রাহুলের দল। আগে ব্যাট করে পাঞ্জাব দাঁড় করায় ১৭৯ রানের সংগ্রহ। জবাবে ব্যাঙ্গালুরুর ইনিংস থামে ১৪৫ রানে।

এমন পরাজয়ের পর আবার প্রশ্নের মুখে পড়েছে কোহলির অধিনায়কত্ব। বিশেষ করে ডেথ ওভারে বোলারদের ব্যবহারের বিষয়ে কোহলির ব্যর্থতাই বড় করে দেখছেন ভারতের সাবেক পেসার আশিস নেহরা। তার মতে, বোলিংয়ের সময় আরও হিসেবি হতে হবে কোহলিকে।

পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচটিতে শেষ ওভার করেছিলেন আসরের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি হার্শাল প্যাটেল। তার ওভার থেকে ২২ রান তুলে নেন পাঞ্জাব অধিনায়ক লোকেশ রাহুল। এর আগে চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে ম্যাচের শেষ ওভারে রবীন্দ্র জাদেজার বিপক্ষে ৩৭ রান হজম করেছিলেন হার্শাল।

অথচ দুই ম্যাচেই একটি করে ওভার বাকি ছিল কাইল জেমিসনের। পাঞ্জাবের বিপক্ষে এক ওভার বাকি ছিল মোহাম্মদ সিরাজের। তবু হার্শাল প্যাটেলকেই বোলিং দেয়ায় কোহলির সমালোচনা করেছেন নেহরা। ক্রিকবাজের ম্যাচ পরবর্তী বিশ্লেষণে এ বিষয়ে আলোচনা করেছেন তিনি।

নেহরা বলেছেন, ‘একজন বোলার যখন ডেথ ওভারে বোলিং করে, তখন রান খরচ করাই স্বাভাবিক। হার্শাল প্যাটেল চেন্নাইয়ের মাঠে দুর্দান্ত ছিল। কারণ সেখানে কন্ডিশন তার পক্ষে ছিল। কিন্তু হার্শালের তো জাসপ্রিত বুমরাহ কিংবা মোহাম্মদ শামির মতো সামর্থ্য নেই। তাই ব্যাঙ্গালুরুর উচিত ডেথ বোলিংয়ে আরও নজর দেয়া।’

এসময় কোহলিকে আরও ভাবার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, ‘দলের রান যেখানে ১৭০-১৮০ এবং একজন বোলার ৪ ওভারেই ৫৩ রান দেয়, তাও দুইবার- তার মানে এখানে অবশ্যই কিছু ভুল হচ্ছে। ব্যাঙ্গালুরুর উচিত জেমিসন বা সিরাজকে এ দায়িত্ব দেয়া। তাদের দুজনেরই ১টি করে ওভার ছিল। এ জিনিসটা কোহলির আরও ভাবা উচিত।’



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি