বুধবার,১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • প্রচ্ছদ » রাজনীতি » সব নিয়ন্ত্রণ করা শেখ হাসিনার একার দায়িত্ব নয়, রেহানাকেও দায়িত্ব দেওয়া উচিত


সব নিয়ন্ত্রণ করা শেখ হাসিনার একার দায়িত্ব নয়, রেহানাকেও দায়িত্ব দেওয়া উচিত


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৯.১২.২০২১

ডেস্ক রিপোর্টঃ

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, আমরা যে জন্য যুদ্ধ করেছিলাম, আমরা যদি কথাই না বলতে পারি, তাহলে এত উন্নয়ন দিয়ে কী হবে?

রোববার (১৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে গণফোরাম আয়োজিত ‘দুঃশাসন উত্তরণে বীর মুক্তিযোদ্ধার চোখে আজ ও আগামীর বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, সব দায়িত্ব পালন প্রধানমন্ত্রীর একার পক্ষে সম্ভব নয়। মানবাধিকার বা কোথায় কী অন্যায় হচ্ছে, এসব নিয়ন্ত্রণ করতে শেখ রেহানাকেও দায়িত্ব দেওয়া উচিত। শেখ রেহানাকে দায়িত্ব না দিলে আওয়ামী লীগ আমলাদের দল হয়ে যাবে। আমলারা বয়স বাড়িয়ে কমিয়ে মুক্তিযোদ্ধা হয়ে যাচ্ছেন। তারাই এখন সব। সব নিয়ন্ত্রণ করা এখন শেখ হাসিনার একার দায়িত্ব নয়। তাদের ধরতে পারার সাহস একমাত্র শেখ রেহানারই আছে। সেই সঙ্গে সরকারের উচিত একটা সুন্দর নির্বাচনী ব্যবস্থা সৃষ্টি করা।

ডা. জাফরুল্লাহ আরও বলেন, আজ এত বড় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানের কোথাও আ স ম আব্দুর রব, কাদের সিদ্দিকীর ছবি দেখতে পেলাম না। তার মানে তারা ইতিহাসকে ঢেকে ফেলতে চাইছে। মুক্তিযুদ্ধে তাদের অবদান অস্বীকার করতে চাইছে। আমরা একবারও সিরাজুল আলম খানের কথা বলি না। সে নীরবে নিভৃতে থাকে। আমরা যে কারণে মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম, সেটা তো সম্পূর্ণ উপেক্ষিত। কয়টা স্কুলের বইতে কাদের সিদ্দিকীর কথা, রবের কথা লেখা আছে? আমরা যদি সে ইতিহাস শিক্ষার্থীদের না পড়াই, তাহলে তার প্রভাব পড়বে সর্বত্র।

বীরাঙ্গনা শব্দটাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রচলন করেননি মন্তব্য করে তিনি বলেন, শব্দটির প্রচলন করেছিলেন কামরুজ্জামান সাহেব। তখন সময়টা ছিল ২২ ডিসেম্বর। বঙ্গবন্ধু দেশে আসার আগে।

আলোচনা সভায় বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, আ স ম আব্দুর রব ও গণফোরামের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি