সোমবার,২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • প্রচ্ছদ » খেলা » কান্নাভেজা চোখে জুভেন্টাসকে বিদায় জানালেন দিবালা


কান্নাভেজা চোখে জুভেন্টাসকে বিদায় জানালেন দিবালা


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৭.০৫.২০২২

স্পোর্টস ডেস্ক:

সাজঘরে ফেরার পথে বাচ্চাদের মতো ফুঁপিয়ে কাঁদছিলেন পাওলো দিবালা। সতীর্থরা জড়িয়ে ধরে, পিঠ চাপড়ে দিচ্ছিলেন সান্ত্বনা। গ্যালারি ভর্তি দর্শকরা করতালি দিয়ে জানাচ্ছিলেন অভিবাদন। এমন আবহের নেপথ্য হয়তো অজানা নয় ফুটবল প্রেমীদের। রোববার জুভেন্টাসের হয়ে নিজের শেষ ম্যাচটি খেলে ফেলেছেন আর্জেন্টাইন তারকা। দীর্ঘ ৭ বছরের সম্পর্কের ইতি টানার ম্যাচে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন দিবালা।

এক মাস ধরেই গুঞ্জন চলছে নতুন মৌসুমে নতুন ঠিকানায় দেখা যাবে দিবালাকে। একদিন আগেই ইতালিয়ান সিরিআর ক্লাবটি ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে টুইট করে আর্জেন্টাইন তারকা। সোমবার রাতে অ্যালিয়েঞ্জ স্টেডিয়ামে ল্যাজিওর বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করে জুভেন্টাস। ম্যাচে ৭৮ মিনিট খেলেন দিবালা।

ম্যাচটি জুভেন্টাসের আরেক তারকা জর্জিও কিয়েল্লিনিরও বিদায়ের মঞ্চ ছিল। প্রথম ১৭ মিনিট খেলেই উঠে পড়েন এই ইতালিয়ান তারকা।

ল্যাজিওর বিপক্ষে মাঠে নামার আগে টুইটে দিবালা লিখেছেন, ‘জুভেন্টাসকে বিদায় জানানোর বিষয়ে সঠিক শব্দ খুঁজে পাওয়া কঠিন

দীর্ঘ সময় আমি এখানে ছিলাম, সে কারণেই অনেক বেশি আবেগ আমাকে ঘিরে ধরেছে। আমি মনে করেছিলাম আরো কিছুদিন হয়তো এখানে থাকতে পারব। কিন্তু ভাগ্য আমাকে ভিন্ন পথে নিয়ে গেছে। তোমরা আমাকে যা দিয়েছো তা কখনো ভোলার নয়। এখানে থেকেই আমি পরিণত হয়েছি। পুরো পথটাই যাদুর মত আশ্চর্যজনক ছিল। সাত বছরে ১২টি শিরোপা, ১১৫ গোল- সবাই এটা অর্জন করতে পারে না।’

দিবালা লিখেছেন, ‘কঠিন মুহূর্তে আমাকে সহযোগিতা করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। এই সময় যারা আমার পাশে ছিল তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। এই ক্লাবের জার্সি পরা স্বপ্নের মতো ছিল। অধিনায়কের দায়িত্বও পেয়েছিলাম।’

২০১৫ সালে পালেরমো থেকে জুভেন্টাসে আসেন দিবালা। ২৯১ ম্যাচে ১১৫ গোল করেছেন এই স্ট্রাইকার। জিতেছেন চার সিরিআ এবং পাঁচ কোপা ইতালিয়া শিরোপা।
এদিকে ২০০৪ সালে জুভেন্টাসে যোগ দেয়া কিয়েল্লিনি ক্লাবটির হয়ে ৫৫৯ ম্যাচ খেলেছেন। সম্প্রতি আন্তর্জাতিক ফুটবলকেও বিদায় জানিয়েছেন এই ইতালিয়ান।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি