শনিবার,১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ


স্ত্রীকে নিয়ে বিলাসবহুল ভবনে ছেলে, মুরগির খামারের সঙ্গে বাবা


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২১.১১.২০২২

ডেস্ক রি পোর্ট:

কুমিল্লা লাকসাম উপজেলায় পাঁচতলা ভবনের তিনতলায় বসবাস করেন ছেলে সামছুল হক ও স্ত্রী শাহিদা আক্তার। অথচ বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী অসুস্থ বৃদ্ধ বাবাকে ফেলে রেখেছেন ভবনের ছাদে মুরগি খামারের সঙ্গে ছোট্ট টিনের ঘরে। ভুক্তভোগী ইয়াকুব আলী (৮০) কুমিল্লা লাকসাম পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে কলেজ রোড ও পশ্চিমগাঁও পুরান বাজার এলাকার বাসিন্দা।

গতকাল রোববার বিকেলে সরেজমিনে এই দৃশ্য দেখা যায়। এ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজা মতিন ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর।

স্থানীয়রা জানান, বৃদ্ধ ইয়াকুব আলী উপজেলা কান্দিরপাড় ইউনিয়ন ছঁনগাও গ্রামের নিজবাড়িতে স্ত্রী ও দুই ছেলে, পাঁচ মেয়ে নিয়ে থাকতেন। ২০০৬ সালে তার স্ত্রী মৃত্যুর পর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। বৃদ্ধের বড় ছেলে ২০০৭ সালে উপজেলার পশ্চিমগাঁও পুরান বাজার এলাকায় ‘হক মঞ্জিল’ নামে একটি বহুতল ভবন নির্মাণ করেছেন। ছেলে সামছুল হক ভবনের তিন তলায় স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে থাকেন। পাঁচ তলা ভবনের ছাদের ওপর একটি টিনের ঘরে রেখেছেন তার বৃদ্ধ বাবাকে। ঘরের একপাশে মুরগি খামার অন্যপাশে বস্ত্রহীন অবস্থায় পড়ে আছেন বৃদ্ধ ইয়াকুব আলী। চটের বিছানার আশপাশ দুর্গন্ধ ও ব্রয়লার মুরগির ময়লা।

লাকসাম পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ আবু সায়েদ বাচ্চু জানান, ভুক্তভোগী বৃদ্ধকে প্রায়ই এলাকায় দেখতাম। তবে গত কয়েক মাস ধরে দেখি না। তার ছেলে সন্তানরা থাকার পরও নিজবাড়ির ছাদে বসবাস এটি খুবই দুঃখজনক।

লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজা মতিন বলেন, ‘গতকাল রোববার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। পরে বৃদ্ধ বাবাকে তাদের বাসায় নিয়ে আসার জন্য সময় দেওয়া হয়েছে। যদি তারা দায়িত্ব পালন না করে, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি