শুক্রবার,৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ


কঠিন সমীকরণে মাঠে নামছে ৭ দল


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
৩০.১১.২০২২

স্পোর্টস ডেস্ক:

মরুর বুকে প্রথম বিশ্বকাপে নকআউট পর্ব নিশ্চিতের সম্ভাবনায় বুধবার (৩০ নভেম্বর) মাঠ নামবে গ্রুপ ‘সি’ ও ‘ডি’-এর দলগুলো। তবে ফ্রান্স এর মধ্যেই নক-আউট পর্ব নিশ্চিত করেছে। শেষ ১৬ নিশ্চিতে কঠিন সমীকরণের সামনে দাঁড়িয়ে দলগুলো। গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে দলগুলো একই সময়ে মুখোমুখি হবে। এজন্য সমীকরণ আরও বেশি রোমাঞ্চকর।

‘সি’ গ্রুপে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনার পয়েন্ট ৩। তাই গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই। ড্র করলেও মেসিদের নকআউট পর্বে যাওয়ার সুযোগ থাকবে, যদি অন্য ম্যাচে মেক্সিকোর সঙ্গে সৌদি আরব ড্র করে। সৌদি আরব হারলেও ড্রয়ে আর্জেন্টাইনদের শেষ ১৬-তে যাওয়ার সুযোগ থাকছে। কারণ, গোল ব্যবধানে মেসিরা এগিয়ে রয়েছে। কমপক্ষে ৩-০ গোল ব্যবধানে যদি মেক্সিকো জয় পায়, তাহলে ড্র করলেও কোচ লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা বাদ পড়বে।

আর্জেন্টিনার সঙ্গে ড্র করলেও নকআউট পর্ব নিশ্চিত পোল্যান্ডের। তবে হারলেও সুযোগ থাকছে। সেক্ষেত্রে গ্রুপ পর্বের অন্য ম্যাচে সৌদি আরবকে মেক্সিকোর সঙ্গে জিততে হবে। কিন্তু মেক্সিকো জয় পেলে পোলিশদের ভাগ্য নির্ভর করবে গোল ব্যবধানের ওপর। মেক্সিকোর গোল ব্যবধান ৪-০ এর কম হলেই পোল্যান্ড শেষ ১৬-তে জায়গা করে নেবে।

জয় পেলেই শেষ ১৬-তে জায়গা করে নেবে সৌদি আরব। ড্র করলেও সুযোগ থাকছে। তবে গ্রুপ পর্বের অন্য ম্যাচে অবশ্যই আর্জেন্টিনাকে হারতে হবে। অন্যদিকে শেষ ১৬-তে যাওয়ার জন্য মেক্সিকোর জয়ের বিকল্প নেই। জয় পেলেও আর্জেন্টিনা-পোল্যান্ড ম্যাচের ওপর তাদের শেষ ১৬-এর ভাগ্য নির্ভর করছে। আর্জেন্টিনা হারলেই শেষ ১৬-এ যেতে পারবে মেক্সিকো। ওই ম্যাচে ড্র হলেও গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকলে শেষ ১৬-তে যেতে পারবে মেক্সিকো।

মরুর বুকে প্রথম বিশ্বকাপে প্রথম দল হিসেবে শেষ ১৬ নিশ্চিত করেছে বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। গ্রুপ পর্বে নিয়ম রক্ষার ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ তিউনিসিয়া। নকআউট পর্বে জায়গা করে নিতে জয় পেতেই হবে তিউনিসিয়ানদের, এর সঙ্গে অপেক্ষা করতে হবে অস্ট্রেলিয়ার হার কিংবা ডেনমার্ক-অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচের ড্রয়ের জন্য। এ ছাড়া শুধু অস্ট্রেলিয়া হারলেই হবে না, ডেনমার্ক বড় ব্যবধানে জয় পেয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকলে বাদ পড়বে তিউনিসিয়া।

জয় পেলেই শেষ ১৬-তে চলে যাবে অস্ট্রেলিয়া। ড্র করলেও অজিদের সুযোগ থাকবে। কারণ, ডেনমার্ক ও তিউনিসিয়া থেকে গোল ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে সকারুসরা। এ ছাড়া শেষ ১৬-তে যেতে ডেনমার্কের জয় ছাড়া অন্য কোনো উপায় নেই। তবে তিউনিসিয়া ফ্রান্সের সঙ্গে বড় ব্যবধানে জয় পেলেই বাদ পড়বে ডেনমার্ক।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি