রবিবার,১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


হাওয়াইয়ে দাবানলে নিহত ৬, পুড়েছে ঐতিহাসিক শহর লাহাইনা


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১০.০৮.২০২৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

হাওয়াইয়ের মাউই দ্বীপে ভয়াবহ দাবানলে অন্তত ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার দূরবর্তী এক ঘূর্ণিঝড়ের বাতাসে ভয়াবহ রূপ ধারণ করে দাবানল। এর প্রকোপ থেকে বাঁচতে পালিয়ে যায় হাজার হাজার মানুষ। আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে পর্যটকপ্রিয় শহর লাহাইনা।

মার্কিন বেসামরিক টহল বিমান ও মাউই ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, অন্তত ২৭১টি অবকাঠামো আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। লাহাইনা থেকে পালিয়ে যাওয়া এক বাসিন্দা জানিয়েছে, আমরা ভয়াবহ দুর্যোগ দেখলা, পুরো শহর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। যেন কেয়ামত দেখছি।’

হেলিকপ্টার পাইলট রিচার্ড ওলস্টেন বলেন, ‘দেখে মনে হচ্ছে এই এলাকায় বোমা ফেলা হয়েছে। যেন কোনও যুদ্ধক্ষেত্র।’

মাউইতে প্রায় ১২হাজার মানুষের বসবাস। শহরের মেয়র বলছেন, আগুনে অনেক ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির প্রকৃত পরিমাণ নির্ধারণ করা এখনও কঠিন এবং মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। আগুনের কারণে বাস্তুচ্যুত হয়েছে প্রায় ২১০০ মানুষ।

হাওয়াই যোগাযোগ দপ্তরের মুখপাত্র এড স্নিফেন বলেন, অন্তত ৪ হাজার পর্যটক মাউই থেকে পালানোর চেষ্টা করছেন। তাদের সবাইকে বিমানবন্দরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

কর্মকর্তারা বলেছেন যে মাউইতে তিনটি বড় অগ্নিকাণ্ড এখনও সক্রিয় এবং নিয়ন্ত্রণের বাইরে রয়েছে। রাজ্যের একজন মার্কিন সিনেটর ব্রায়ান শ্যাটজ বলেন, দমকলকর্মীরা এখনও আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে।

গতকাল বুধবার ভোরে খবর পাওয়া গেছে যে, আগুন থেকে বাঁচতে বেশ কয়েকজন মানুষ সাগরে ঝাঁপ দিয়েছে। মার্কিন কোস্টগার্ড জানিয়েছে, তারা অন্তত ১২ জন মানুষকে পানি থেকে উদ্ধার করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস জানিয়েছে, অগ্নিকাণ্ড ঘূর্ণিঝড় ডোরা দ্বারা প্রজ্বলিত হয়েছিল, যা হাওয়াইকে দূরত্বে অতিক্রম করেছিল কিন্তু এর সাথে ঘণ্টায় ৬০ মাইল বেগে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে গিয়েছিল।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি