রবিবার,১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • প্রচ্ছদ » রাজনীতি » পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ক্ষমতাসীন সরকার ও তার মন্ত্রীরা ব্যর্থ: মান্না


পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ক্ষমতাসীন সরকার ও তার মন্ত্রীরা ব্যর্থ: মান্না


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১০.০৩.২০২৪

ডেস্ক রিপোর্ট:

‘পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে ক্ষমতাসীন সরকার ও তার মন্ত্রীরা ব্যর্থ’ বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের সভাপতি ও গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেন, ‘বাজারে আগুন লেগেছে, সরকার কিছুই করতে পারে না। দ্রব্যমূল্য নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা মজুত করে তাদের গণপিটুনি দাও। কিন্তু যারা দামের প্রতিবাদ করেছে তাদেরই গণপিটুনি দিয়েছে।

তিনি বলেন, ‘জেলখানায় মানুষ মারা যাচ্ছে, সরকার বলছে জন্মালে তো মরবেই। এরকম একটা সরকার জোর করে ক্ষমতা দখল করে আছে। তারা সাধারণ মানুষকে ভালোবাসে না। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য, বিদ্যুতসহ সব পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে সরকার ও তার মন্ত্রীরা ব্যর্থ হয়েছে।’

রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের উদ্যোগে দেশের অর্থনৈতিক বিপর্যয়, প্রবাসীদের ভাবনা, সংকট ও সুরক্ষা শীর্ষক আলোচনা সভায় মান্না এসব কথা বলেন।

সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এহসানুল হক মিলন বলেন, ‘শনিবার চট্টগ্রাম বন্দরে সর্বনিম্ন জাহাজ এসেছে। তার মানে আমদানি কমছে। আমদামি কমছে মানে বৈদেশিক মুদ্রা নেই। যদিও সরকার অটো পাস করার পর কেউ কেউ বলছে রিজার্ভ আগের চেয়ে কিছুটা বেড়েছে। যদিও আমরা সঠিক কোনো তথ্য পাচ্ছি না। ’

গণঅধিকার পরিষদের (একাংশ) সভাপতি নুরুল হক নুর বলেন, ‘বাংলাদেশের শ্রমিকদের মতো এত সস্তা শ্রমিক পৃথিবীর কোথাও পাওয়া যায় না। বিদেশে গিয়েও তারা হয়রানি, নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। আমরা যদি বলতে পারতাম, আমাদের একজন শ্রমিক ক্ষতিগ্রস্ত হলে আমরা আর শ্রমিক পাঠাব না। তাহলে আমাদের শ্রমিকদের অধিকার সুরক্ষিত হতো।’

তিনি বলেন, ‘যারা দায়িত্বে আছেন দেশ, জাতি এবং প্রবাসীদের স্বার্থে কাজ করুন। সরকার খরচ নির্ধারণ করে দিয়েছে কিন্তু ট্রাভেল এজেন্সিগুলো ৪-৫ গুণ বেশি টাকা নিচ্ছে। এরপর শ্রমিকরা বিদেশ গিয়ে আবার ঠিকমতো বেতনও পাচ্ছে না।’

আলোচনা সভায় বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল মামুন লিখিত বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের পক্ষ থেকে ১০টি দাবি সরকারের কাছে তুলে ধরেন। এ সময় আরও বক্তব্য দেন ১২ দলীয় জোটের মুখপাত্র রাশেদ প্রধান, গণঅধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ খান প্রমুখ।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি