বৃহস্পতিবার,২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


অবৈধ সরকার আমাদের স্বাধীনতাকে দুর্বল করেছে: রিজভী


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
২৫.০৩.২০২৪

ডেস্ক রিপোর্ট:

লড়াই সংগ্রাম করে সরকারের পতন ঘটানো ছাড়া মানুষের মুক্তির উপায় নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘এই অবৈধ সরকার আমাদের স্বাধীনতাকে দুর্বল করেছে নিজেদের অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে গিয়ে পার্শ্ববর্তী দেশের স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে নিজেদের দেশের স্বাধীনতাকে বিক্রি করে দিচ্ছে। এই সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে।’

সোমবার (২৫ মার্চ) সকালে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের উদ্যোগে এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

পার্শ্ববর্তী দেশের কঠোর সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ‘আমরা পৃথিবীর সব গণতান্ত্রিক দেশের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করি। কিন্তু যখন দেখি একটি দেশ, দেশের জনগণ নয়, বাংলাদেশ নয় একটি অবৈধ দখলদার সরকারকে প্রকাশ্যে সমর্থন করে তাহলে কি করে সেই দেশের সঙ্গে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি বন্ধুত্ব বজায় রাখতে পারে? কারণ তারা তো এদেশের জনগণকে এই দেশের মানুষকে কোনো মূল্যই দেয় না।

তিনি বলেন, ৭ জানুয়ারি যে ডামি নির্বাচন হয়ে গেলো পৃথিবীর অন্যান্য গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রগুলো ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা অস্ট্রেলিয়া তারা বলেছে আমরা কোন দলের পক্ষে নয় আমরা বাংলাদেশের জনগণের পক্ষে আমরা সুষ্ঠ নির্বাচনের পক্ষে এইটাই তো বড় কথা। কিন্তু পার্শ্ববর্তী দেশ সেটি বলে না তারা বলে আমরা এই সরকারের পক্ষে।

রিজভী বলেন, যখন একটি দখলদার অবৈধ সরকারকে পার্শ্ববর্তী দেশ যারা নিজেদেরকে গণতান্ত্রিক দেশ দাবি করে তারা যখন প্রকাশ্যে সমর্থন করে তখন আমাদেরকে ভাবতে হবে আমাদের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব অনেক দুর্বল অবস্থার মধ্যে আছে, দুর্বল হয়ে গেছে। আজকে দেশের মানুষ কথা বলতে পারে না আজকে দেশের মানুষ তার যে ন্যায্য অধিকার সেই অধিকারের কথা বলতে পারে না। এই অবস্থার পরিবর্তন ঘটাতে হবে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে কথা বললে অনেকের গা জ্বালা পোড়া করে। কারণ শেখ হাসিনা জানে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের কি হবে। এই কারণেই নিজের দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বকে বিক্রি করে হলেও তিনি ক্ষমতায় টিকে থাকতে চান।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাৎ, সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি