বুধবার,২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


ইরানে ইসরায়েলি হামলা, লাফিয়ে বাড়ল তেল ও স্বর্ণের দাম


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৯.০৪.২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ইরানে ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পরপরই বিশ্ব বাজারে বেড়েছে জ্বালানি তেল ও সোনার দাম। এর মধ্যে তেলের দাম বেড়েছে অন্তত ৩ দশমিক ৫ শতাংশ। ব্রেন্ট ক্রুড তেলের দাম ১.৮ শতাংশ বেড়ে ব্যারেলপ্রতি ৮৮ মার্কিন ডলার হয়েছে। আর রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে সোনার দাম। প্রতি আউন্স সোনার দাম এখন প্রায় ২ হাজার ৪০০ মার্কিন ডলারে ঠেকেছে।

জ্বালানি তেলের দামবৃদ্ধি বিশ্বজুড়ে মূল্যস্ফীতিকে বাড়িয়ে দেয়। কেননা বিশ্বের সব দেশই এই পণ্যের উপর চরমভাবে নির্ভরশীল। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, গত কয়েক বছরে বিশ্বব্যাপী জীবনযাত্রার যে উচ্চ ব্যয় সৃষ্টি হয়েছে, তার পেছনে জ্বালানির দামবৃদ্ধি অন্যতম প্রধান কারণ।

এদিকে, মধ্যপ্রাচ্যে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার ফলে ওমান ও ইরানের মধ্যকার হরমুজ প্রণালী দিয়ে পণ্য বহন প্রভাবিত হবে কি না, তা নিয়ে উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে এই শিপিং রুটটি খুব গুরুত্বপূর্ণ; কারণ, বিশ্বের মোট তেলের প্রায় ২০ শতাংশেই এই রুট দিয়েই বিভিন্ন দেশে পৌঁছে যায়। তেল উৎপাদনকারী দেশগুলোর সংস্থা ওপেকের সদস্য সৌদি আরব, ইরান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত ও ইরাক তাদের বেশিরভাগ তেল রপ্তানি করে এই প্রণালী দিয়ে।

ইউএস এনার্জি ইনফরমেশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অনুসারে, ইরান বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম তেল উৎপাদনকারী ও ওপেকের তৃতীয় বৃহত্তম সদস্য। ফলে দেশটিতে উত্তেজনা দেখা দিলে তেলের বাজারে স্বাভাবিকভাবেই অস্থিরতা দেখা দেবে বলে মতামত বাজার বিশ্লেষকদের।

যুক্তরাজ্যের এমঅ্যান্ডজি ইনভেস্টমেন্ট ম্যানেজমেন্টের ফান্ড ম্যানেজার রনদ্বীপ সুমেল বিবিসিকে বলেন, মূল্যস্ফীতির একটা শঙ্কা দেখা যাচ্ছে। এখন বিষয়টি শেষ পর্যন্ত সেদিকেই যায় কিনা, তা দেখার বিষয়।

১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইরানের কনস্যুলেট ভবনে হামলা চালায় ইসরায়েল। ওই হামলায় ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) অভিজাত শাখা কুদস ফোর্সের জ্যেষ্ঠ কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ রেজা জাহেদিসহ কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তা নিহত হন।

দামেস্কে হামলার প্রতিশোধ হিসেবে ইসরায়েলে শত শত ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। এরপর শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) ইরানে ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার কথা জানায় যুক্তরাষ্ট্র। গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে তেল আবিব ও তেহরানের মধ্যে এই উত্তেজনা চলছে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে ইরান জানায়, তেল আবিবকে তেহরানের স্বার্থের বিরুদ্ধে সামরিক দুঃসাহসিকতা দেখানো বন্ধ করতে হবে। এমনটি করতে ইসরায়েলকে বাধ্য করা প্রয়োজন।

এর আগে ইসরায়েল পাল্টা হামলা চালালে পরিণতি ভালো হবে না বলে হুঁশিয়ারি দেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। তাছাড়া ইরানে পাল্টা হামলা না করার জন্য ইসরায়েলকে আহ্বান জানিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রসহ ইসরায়েলের অন্যান্য পশ্চিমা মিত্ররাও। এরপরও ইরানে পালটা হামলা চালালো নেতানিয়াহু বাহিনী।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি