বুধবার,২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


যুদ্ধবিরতি চুক্তি হামাসের ‘বিনা বাক্যে’ মেনে নেয়া উচিত: ব্লিংকেন


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৫.০৫.২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় হামাসের বিনা বাক্যে যুদ্ধবিরতি চুক্তি মেনে নেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিংকেন বলেছেন, ইসরায়েলের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি চুক্তি ‘বিনা বাক্য ব্যয়ে’ মেনে নেওয়াটাই হামাসের উচিত হবে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

ব্লিঙ্কেন বলেন, হামাস ফিলিস্তিনি জনগণের “প্রতিনিধিত্ব করতে চায়” ব্যাপারটা যদি এমন হয় তাহলে তো তাদের যুদ্ধবিরতির গ্রহণ না করার কোন যৌক্তিকতা নেই।

হামাস ঘোষণা দিয়েছে, মিসর ও কাতারের মধ্যস্থতায় দীর্ঘদিন ধরে চলা আলোচনা পুনরায় শুরু করার জন্য তাদের প্রতিনিধি দল কায়রোতে ফিরে আসবে। ইসরায়েলের জিম্মিদের মুক্তির বিনিময়ে গাজায় তাদের আক্রমণ সাময়িকভাবে বন্ধ করার বিষয়টিই আলোচনাতে আসবে।

ব্লিংকেন বলেন, “যুদ্ধবিরতি ও জিম্মিদের মুক্তির বিষয়ে তারা কি বলবে সেই অপেক্ষায় আমরা আছি। তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে বাস্তবতা হলো গাজার জনগণ ও যুদ্ধবিরতির মাঝে একটামাত্রই নাম, সেটা হামাস।’

যুক্তরষ্ট্রের অ্যারিজোনায় ম্যাককেইন ইনস্টিটিউটের সেডোনা ফোরামের বক্তব্যে ব্লিঙ্কেন আরও বলেন, ‘আমরা সামনের দিনগুলোতে ভাল কিছুই আশা করছি ‘

হামাস ফিলিস্তিনি জনগণের ‘প্রতিনিধিত্ব’ করতে চায় উল্লেখ করে ব্লিঙ্কেন বলেন, ‘যদি এটি সত্য হয়, তাহলে যুদ্ধবিরতি গ্রহণ করা তাদের এতো ভাববার কিছু নেই।’

গত বছরের ৭ অক্টোবর অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েল অভিমুখে হাজার হাজার রকেট ছুড়ে মুক্তিকামী ফিলিস্তিনিদের সশস্ত্র সংগঠন হামাস। এতে ইসরায়েলে নিহত হয়েছেন এক হাজার ৪০০ জন। এরপরেই বছরের পর বছর ধরে গাজায় চলা সামরিক পদক্ষেপ জোরাল করে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে প্রাণ হারিয়েছে ৩৪ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি, আহত ৭৪ হাজারেরও বেশি। হতাহতদের বেশিরভাগই বেসামরিক। এমন অবস্থায় বিশ্বজুড়ে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো হচ্ছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি