বুধবার,২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • প্রচ্ছদ » খেলা » শীর্ষে কলকাতা, প্লে-অফের ৩ জায়গার জন্য ৭ দলের লড়াই


শীর্ষে কলকাতা, প্লে-অফের ৩ জায়গার জন্য ৭ দলের লড়াই


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১৩.০৫.২০২৪


স্পোর্টস ডেস্ক:

চলমান আইপিএল এখন পর্যন্ত একমাত্র দল হিসেবে কলকাতা নাইট রাইডার্স প্লে-অফ নিশ্চিত করেছে। তবে এখনও তিনটি জায়গা বাকি। কিন্তু এই তিন জায়গার জন্য সাতটি দল লড়াই করছে।

গতকাল রাজস্থান রয়্যালসকে হারিয়ে প্লে-অফের আশা বাড়িয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস। এমনকি টানা পাঁচটি ম্যাচ জিতে লড়াইয়ে টিকে রয়েছে বিরাট কোহলিদের রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। তবে লিগের আট নম্বরে থাকা গুজরাট টাইটান্সও প্লে-অফের লড়াইয়ে খাতায়-কলমে রয়েছে।

কলকাতা যেহেতু প্লে-অফে উঠে গেছে, তাই তাদের এক বা দু’নম্বরে শেষ করার সম্ভাবনা রয়েছে তাদের। আসর থেকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও পাঞ্জাব কিংস বিদায় নিয়েছে।

নাইট রাইডার্স ১২ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফে উঠেছে। দলটি যদি বাকি দুটি ম্যাচ হারে ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ তাদের বাকি দুটি ম্যাচ জেতে তা হলে দুই দলের পয়েন্ট সমান হবে। তবুও নেট রানরেটে কলকাতার প্রথম দুইয়ে থাকার সম্ভাবনা বেশি।

১২ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট রাজস্থান রয়্যালসের। হারের হ্যাটট্রিক করলেও এখনও রাজস্থানের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে শেষ করার সম্ভাবনা ১২.৫ শতাংশ। যদি রাজস্থান বাকি দু’টি ম্যাচ হারে তা হলে চেন্নাই ও হায়দরাবাদের সঙ্গে একই পয়েন্টে শেষ করতে পারে তারা। তার পরেও নেট রানরেটের বিচারে প্লে-অফে উঠতে পারে রাজস্থান।

মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাইয়ের ১৩ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট। প্রথম চারে শেষ করার সম্ভাবনা ৯১ শতাংশ। আরও দুই বা তিনটি দলের সঙ্গে একই পয়েন্টে শেষ করার সম্ভাবনাও রয়েছে তাদের। সে ক্ষেত্রে কাজে আসবে নেট রানরেট। ধোনিদের নেট রানরেট কেকেআরের পরেই সব থেকে ভালো।

হায়দরাবাদের ১২ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলায় চেন্নাইয়ের থেকেও হায়দরাবাদের প্রথম চারে ওঠার সম্ভাবনা বেশি (৯৭ শতাংশ)। কলকাতা ও রাজস্থানের সঙ্গে তাদের একই পয়েন্টে শেষ করার সম্ভাবনা ৩ শতাংশ।

১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট ব্যাঙ্গালুরুর। শেষ ম্যাচ জিতলে ব্যাঙ্গালুরুর আরও পাঁচটি দলের সঙ্গে একই পয়েন্টে শেষ করারও সম্ভাবনা রয়েছে। কোহলিদের নেট রানরেট বাড়ায় সুযোগ বেড়েছে তাদের।

দিল্লি ক্যাপিটালসের ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট। দিল্লির প্লে-অফে ওঠার সম্ভাবনা ৩১.৩ শতাংশ। তিন থেকে পাঁচটি দলের সঙ্গে একই পয়েন্টে শেষ করতে পারে তারা। সে ক্ষেত্রে দেখা হবে নেট রানরেট।

লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস ১২ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট পেয়েছে। এক ম্যাচ কম খেলায় লক্ষ্ণৌর প্লে-অফে ওঠার সম্ভাবনা বেশি (৫৬ শতাংশ)। তিনটি দলের সঙ্গে একই পয়েন্টে শেষ করতে পারেন লোকেশ রাহুলরা।

১২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট গুজরাট টাইটান্সের। তাদের প্লে-অফে ওঠার সম্ভাবনা সব থেকে কম (১৬ শতাংশ)। আরও চার বা পাঁচটি দলের সঙ্গে একই পয়েন্টে শেষ করার সম্ভাবনাও রয়েছে তাদের। তবে গুজরাটের নেট রানরেট কম থাকায় সুযোগ কম।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি