শুক্রবার,১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • প্রচ্ছদ » খেলা » হাতে বল লাগলেও যে নিয়মে পেনাল্টি পায়নি জার্মানি


হাতে বল লাগলেও যে নিয়মে পেনাল্টি পায়নি জার্মানি


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০৬.০৭.২০২৪

স্পোর্টস ডেস্ক:

ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে স্পেন ও জার্মানির মধ্যে একটি ঘটনাবহুল ম্যাচই দেখা গেল। ৩৬ বছরের খরা কাটিয়ে ইউরোতে জার্মানিকে হারিয়েছে স্পেন। ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ছিল দুই দল। রেফারিও কার্ড দেখিয়েছেন সমানতালে। ম্যাচটিতে এক লালকার্ড ও ১৬ বার হলুদ কার্ড বের করতে হয়েছে রেফারিকে। তবে সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনা বক্সের মধ্যে স্পেনের লেফটব্যাক মার্ক কুকুরেয়ার হাতে বল লাগলেও কেন পেনাল্টি দেওয়া হলো না সেটি নিয়ে।

ম্যাচ তখন নির্ধারিত সময় পেরিয়ে অতিরিক্ত সময়ে গড়িয়েছে। ১০৫তম মিনিটে দুই দল ১-১ গোলে সমতায়। স্পেনের ডি বক্সে জার্মানির আক্রমণভাগের খেলোয়াড় জামাল মুসিয়ালার একটি শট লাগে কুকুরেয়ার হাতে। পেনাল্টির আবেদন জানান জার্মানির খেলোয়াড়রা। তবে কর্ণপাত করেননি রেফারি। ভিএআর রুম থেকেও একই সিদ্ধান্ত আসে।

এরপরই ফুটবলপ্রেমীদের মনে প্রশ্ন জেগেছে ডি বক্সে বল হাতে লাগলেও কেন পেনাল্টি দেওয়া হলো না? এর ব্যাখ্যা অবশ্য আগেই দিয়েছিল উয়েফা। ইউরোপীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ এই সংস্থাটি জানিয়েছিল, হাত যদি উপরে তোলা অবস্থায় থাকে ও বলের গতিপথ বাধাগ্রস্ত হয় তাহলে রেফরি কিংবা পরে ভিএআর দেখে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেওয়া যেতে পারে। বল শরীরের সোজাসুজি থাকলে পেনাল্টি হবে না।

কুকুরেয়ার ক্ষেত্রে ঘটেছে দ্বিতীয় ঘটনাটিই। বল যখন এই তারকার হাত লাগে তখন তার হাতটি ছিল নিচের দিকে নামানো। তাছাড়া বল ছিল তার বডিলাইনের পেছনে। হাত বডিলাইনের পেছনে থাকলে সেটি পেনাল্টি হিসেবে বিবেচনা করা হয় না।

অতিরিক্ত সময়সহ ১২০ মিনিটের ম্যাচে শেষ হাসি হাসে স্পেন। ২-১ গোলের জয়ে পৌঁছে যায় সেমিফাইনালে। মাঠে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে রেফারির সেই সিদ্ধান্ত মানতে পারেননি জার্মানির কোচ হুলিয়ান নাগেলসমান। সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে জার্মান কোচ বলেন, ‘এটা নিয়ে বেশি কিছু বলতে চাই না। তবে লক্ষ্যটা কী, সেটা দেখলে ভালো হতো। ধরুন কেউ গ্যালারির দিকে শট নিল এবং বল কারো হাতে লাগল। সেটা কিন্ত পেনাল্টি নয়। ফুটবলে এটি সম্ভব না। কিন্ত বল যখন গোলের পথে ছিল এবং হাতে লাগল তখন লক্ষ্য নিয়ে কথা বলা অর্থহীন।’



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি