সোমবার,১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


সারাদেশে হিজড়াদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ সবাই


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
৩০.১১.২০১৫

hqdefault1
ডেস্ক রিপোর্ট :

রাজধানীসহ সারাদেশে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে হিজড়া বাহিনী। বিভিন্ন দল ও সংগঠনের নামে বিভক্ত হয়ে অভিজাত এলাকা থেকে শুরু করে চাঁদাবাজি করছে তারা। এ ছাড়া শিশু নাচানোর নাম করে পরিবারের কাছ থেকে জোর করে হাতিয়ে নিচ্ছে মোটা অঙ্কের টাকা। ইদানীং তাদের মাত্রাতিরিক্ত অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন রাজধানীবাসী। তারা বলছেন, হিজড়াদের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খখলা বাহিনীর কাছে অভিযোগ করেও কোনো সুফল পাওয়া যাচ্ছে না, যে কারণে তারা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠছে।

বিভিন্ন অভারব্রিজের নিচে, স্কুল কলেজের সামনে, রাস্তার পাশে দোকানে, ফুটপাতের দোকানে জোর করে তারা চাাঁদবাজি করছে। টাকা না দিলে হিজরাদের কাছে অপমানতি হয় দোকানিদের। বিভিন্ন স্কুলের সামনে অবস্থান করে ছাত্র-ছাত্রীদের জিম্মি করে টাকা আদায়ের ঘটনাও ঘটছে। এমনকি মায়েদের ব্যাগ থেকে জোর করে টাকা নিয়ে যায়। কেউ টাকা দিতে অস্বীকার করলে ছেলে-মেয়ে অপহরণের হুমকি দয়ে তারা।

এ ছাড়াও বাসাবাড়ি গিয়ে হিজড়ারা চাঁদা চাচ্ছে, টাকা না দিলে হুমকি দয়ে তাদের। বাসার সামনে ময়লা ফেলে যাওয়ার কথাও বলে তারা।

এ দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা বলছেন, হিজড়াদের বিরুদ্ধে লিখিতভাবে অভিযোগ পাওয়া গেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মানুষ সাধ্যমতো তাদের টাকা ও বিভিন্ন মালামাল দিয়ে সহযোগিতা করে আসছে। কিন্তু গত কয়েক বছর হিজড়াদের আচরণ বদলে গেছে। তারা এখন কম টাকা নিতে চায় না। গতকাল শেওড়াপাড়ার মনিপুর স্কুলের সামনে এক ছাত্রীর মায়ের কাছে টাকা দাবি করে কয়েকজন হিজরা, তিনি ২০ টাকা বের করে দিলে, নিতে অস্বীকার করে তারা পরে জোর করে তার কাছ থেকে কেড়ে নিয়ে ১০০ টাকা নিয়ে ব্যাগ ফেরত দেয়।

ভুক্তভোগীরা বলছেন, হিজড়াদের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে অভিযোগ করেও কোনো সুফল পাওয়া যাচ্ছে না, যে কারণে তারা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠছে।

ব্যবসায়ীরা আরও বলেন, হিজড়াদের টাকা তোলার বিষয়টিকে অনেকে স্বাভাবিক মনে করে থাকেন। এটি নিয়ে কোনো মামলা বা জিডি করা হয় না। মানুষ সাধ্যমতো তাদের টাকা ও বিভিন্ন মালামাল দিয়ে তাদের সহযোগিতা করে আসছে। কিন্তু গত কয়েক বছর হিজড়াদের আচরণ বদলে গেছে। আগের সাহায্য চেয়ে টাকা তোলা এখন জবরদস্তি চাঁদা আদায়ে পরিণত হয়েছে।

শুধু রাজধানীর বাসা-বাড়ি, দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন অফিস-আদালতেই হিজড়াদের চাঁদাবাজি সীমাবদ্ধ নয়, ইদানীং তারা সংঘবদ্ধভাবে চড়াও হচ্ছে চলন্ত বাস, ট্রেনেও। সিটে সিটে যাত্রীদের কাছে হাজির হয়ে তারা ১০-২০ টাকা হারে হাতিয়ে নিচ্ছে। জানা গেছে, হিজড়াদের চাঁদা তোলা সহজ তাই অনেক সক্ষম লোকও হিজড়া সেজে এই ব্যবসায় নেমেছে। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় হিজড়াদের কমবেশি উৎপাত থাকলেও খিলগাঁও, মিরপুরের বিভিন্ন এলাকা, ফার্মগেটসহ গনবসতি এলাকায় হিজরা বেশি অত্যাচার করছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি