রবিবার,২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ


চাকরির প্রলোভনে রাবি শিক্ষকের অনৈতিক কথপোকথনের অডিও ফাঁস


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
১১.০৫.২০২১

ক্যাম্পাস ডেস্কঃ

চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয়ার অভিযোগ উঠেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। নিয়োগের প্রলোভন সম্পর্কিত একটি অডিও কথপোকথন ছড়িয়ে পড়লে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় সমালোচনার ঝড়।

কথপোকথনে এক নারীর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ সম্পর্কিত আলাপ করতে শোনা যায়। এতে ওই নারীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ আলাপ ও অনৈতিক প্রস্তাব দিতেও শোনা গেছে।

পুরুষের কণ্ঠটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের এক সহযোগী অধ্যাপক এবং পরিবহন দপ্তরের সাবেক প্রশাসকের বলে দাবি করেছেন তার সহকর্মীরা। কিন্তু এই কথপোকথনে পুরুষ কণ্ঠটি আসলেই ওই শিক্ষকের কিনা তার সত্যতা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এজন্য তার নাম প্রকাশ করা হচ্ছে না। তার সঙ্গে আলাপচারিতায় থাকা ওই নারীর পরিচয়ও জানা যায়নি। তবে ওই শিক্ষক এ বিষয়টি অস্বীকার করেছেন এবং মিথ্যা বলে দাবি করেছেন।

অডিও’র বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত শিক্ষক বলেন, ‘আমার সঙ্গে কখনও কোনো মেয়ের প্রেমালাপ হয়নি। এমনকি আমি কোনো নিয়োগ বাণিজ্যের সঙ্গেও জড়িত নই। বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু শিক্ষক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার মান সম্মান ক্ষুণ্ন করতে এই প্রচারণা করেছে। এ ঘটনার আমি তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘উপাচার্য অধ্যাপক সোবহান যাওয়ার দিন যে ১৪১ জনের নিয়োগ দিয়েছে, আমার কেউ চাকরি পায়নি। অনেকে বলে আমি চাকরি দিয়ে কোটি কোটি টাকা অর্জন করেছি। আসলে এসব ভুয়া। উপাচার্যের সঙ্গে আমার সম্পর্ক ভালো ছিল, তাই কেউ ষড়যন্ত্র করে এগুলো করেছে।’

তবে ওই শিক্ষকের সহকর্মীরা বলছেন অডিও রেকর্ডটি তার। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক জানান, তারা ওই শিক্ষকের কণ্ঠ চেনেন। রেকর্ডটি শুনে তারা ধারণা করছেন এটি তার কণ্ঠ।

শিক্ষকরা বলছেন, প্রতিটি মানুষের কথায় আঞ্চলিকতার টান থাকে, ভয়েসের ফ্রিকোয়েন্সি থাকে যা আরেকজন চাইলেই সহজে নকল করতে পারে না। আমাদের কাছে সেটা তার কণ্ঠ বলেই মনে হয়েছে। শিক্ষকদের দাবি- এ বিষয়ে তদন্ত করা হোক। দোষী যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনা হোক।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি