বুধবার,১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ


বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পরে মুক্তিযোদ্ধারা পরিচয় দিতে পারে নাই – এড.আবুল হাসেম খান এমপি


পূর্বাশা বিডি ২৪.কম :
০১.০১.২০২২


মোঃ জামাল উদিন দুলাল:
কুমিল্লা-৫(বুড়িচং  ব্রাহ্মণপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট আবুল হাসেম খান এমপি বলেছেন’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুর পর মুক্তিযোদ্ধারা স্বাধীন বাংলাদেশে পরিচয় দিতে পারে নাই’১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর মুক্তিযোদ্ধারা নিজেদের পরিচয় দিতে ভয় পেতেন কারণ রাজাকারেরা একতরফা দেশ শাসন করতে চিয়েছিলো এবং তারা মুক্তিযোদ্ধাদের সামনে দিয়ে তাদের গাড়িতে বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়ে চড়তেন ।

পহেলা জানুয়ারি ২০২২ শনিবার দুপুরে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন, তিনি আরো বলেন,সকল মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান ফিরিয়ে এনেছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বেঁচে আছেন বলেই আমরা বেঁচে আছি এবং সম্মান পাই। আজ তারই হাত ধরে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং বাংলাদেশ সারা বিশ্বে মর্যাদা পাচ্ছে ।

উক্ত অনুষ্ঠানে বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাড.আবুল হাসেম খান এমপি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আখলাক হায়দারকে বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস ছালাম খন্দকার আয়োজনে এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এর পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয় ।

উক্ত অনুষ্ঠানে বুড়িচং উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোসাম্মৎ সাবিনা ইয়াছমিনের সভাপতিত্বে ও উপজেলার ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা ময়নাল হোসেনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও বীরমুক্তিযোদ্ধা আখলাক হায়দার,উপজেলার সাবেক কমান্ডার মোঃ শাহজাহান চেয়ারম্যান । এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা.মীর হোসেন মিঠু,সোনালী ব্যাংকের বুড়িচং শাখার কর্মকর্তা আতিকুর রহমান,অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোসেন,বুড়িচং উপজেলার আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মশিউর রহমান খান,যুবলীগের নেতা ও চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী মোঃ বিল্লাল হোসেন ঠিকাদার,বুড়িচং উপজেলার যুবলীগের নেতা ও সদরের চেয়ারম্যান প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার বাছির খান।বুড়িচং উপজেলার সকল ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার যথাক্রমে উপস্থিত ছিলেন,বসির আহমেদ,জয়নাল আবেদীন,আলমগীর হোসেন,সরু মিয়া,মোসলেম উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম,মোজাম্মেল হোক,আলী আজ্জম,তারিকুল ইসলামসহ সকল মুক্তিযোদ্ধারা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি